ফিচার

স্বপ্ন জয়ের লক্ষ্যেই নিরন্তর পথ চলা ইসমত নাজ ববির

নিজস্ব প্রতিবেদক : স্বপ্ন দেখতে মানা নেই। কিন্তু ক’জন পারে নিজের স্বপ্নগুলোকে বাস্তবায়ন করতে? আসলে শুধু স্বপ্ন দেখলেই হবে না। স্বপ্ন দেখার পাশাপাশি থাকতে হবে স্বপ্ন জয়ের চেষ্টা। এ চেষ্টাই মানুষকে পৌঁছে দিতে পারে নির্দিষ্ট গন্তব্যে। এমনই এক অদম্য মেধাবী নারী, যিনি স্বপ্ন দেখেছেন প্রতিক্ষণ প্রতিমুহূর্তে। আর সে স্বপ্ন পূরণে ছিল তাঁর অদম্য প্রচেষ্টা। এর ফলে তিনি জীবনের লড়াইয়ে সকল প্রতিকূলতা পেরিয়ে ছুটে চলেছেন নির্দিষ্ট গন্তব্যের দিকে। চূড়ান্ত গন্তব্যে পৌঁছার লক্ষ্যে নিরন্তর প্রয়াস অব্যাহত রেখেছেন। অদম্য এই নারীর নাম ইসমত নাজ ববি। বর্তমানে তিনি কর্মরত আছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অধীনস্থ বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল কোম্পানি লিমিটেড (বিএসসিসিএল)-এ।
নিজের স্বপ্নপূরণের বিষয়ে ববি স্বদেশ খবরকে বলেন, ছোটবেলা থেকেই আমি অনেকটা সাতরঙা স্বপ্নের মাঝে ভেসে বেড়াতাম। ইচ্ছে হতো, একটি একটি করে সব স্বপ্নগুলোকেই ছুঁয়ে দেখি! তবে স্বপ্নবাজ আমি এটা খুব ভালোই বুঝতাম, স্বপ্নপূরণে সবার আগে দরকার নিজেকে যোগ্য করে গড়ে তোলা। এ দূরদৃষ্টি আমার ছোটবেলা থেকেই ছিল। ফলে সৈয়দপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেই আমি পাড়ি জমাই ঢাকায়। ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং আর্কিটেকচার শেষ করি ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ডিজাইন (এনআইডি) থেকে। হায়ার ডিপ্লোমা ইন ইনটেরিওর ডিজাইন কোর্স শেষের পথে। এসবই করছি চাকরির পাশাপাশি। যদিও চলার এ পথটি খুব মসৃণ ছিল না।
ববি জানান, তিন ভাই বোনের মধ্যে আমিই বড়। এ কারণেই বোধহয়, মায়ের দৃঢ়চেতা মনোভাব আমার মধ্যে সংক্রমিত হয়েছিল ছোটবেলা থেকেই। মা আমাকে নিয়ে স্বপ্ন দেখতেন। তাই সে স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতেই স্থাপত্য শিল্পের বিষয় বেছে নেয়া। ববি বলেন, ইচ্ছে পূরণে নিরন্তর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি আমি।
জানা যায়, এগিয়ে যাওয়ার গতিটা খুব বেশি না হলেও সুধীমহলে ববি এরই মধ্যে প্রশংসিত হয়েছেন এবং ব্যাপক পরিচিতি পেয়েছেন। আগেই বলা হয়েছে ববি বর্তমানে কর্মরত আছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অধীনস্থ বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল কোম্পানি লিমিটেডে (বিএসসিসিএল)। টানা ৪ বছর বিএসসিসিএলে সুনামের সঙ্গে কাজ করছেন ববি। চাকরির ফাঁকে এরই মধ্যে অনেকগুলো সার্টিফিকেট কোর্স সম্পন্ন করেছেন তিনি। (বিজেএমইএ) জনসংযোগ, গণমাধ্যম ও যোগাযোগ, ট্রেনিং অব ডিজিটাল ইন্টারপ্রেনারশিপ ফর উইমেন ইত্যাদি। পাশাপাশি ববি তার কর্মকা-ের স্বীকৃতিস্বরূপ কিছু পুরস্কারও পেয়েছেন।

ববি জানান, স্বপ্ন ছিল অনেক কিছুই। এইচএসসি পাস করার পর ইচ্ছা হয়েছিল বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে যোগ দেয়ার। তবে সেই লক্ষ্য পূরণ হয়নি ববির। পরে আর্কিটেক্ট হওয়ার স্বপ্ন ঘিরে ধরে তাকে। আর্কিটেক্ট হওয়ার খুব কাছাকাছি এখন ববি।
এসবের পাশাপাশি বিভিন্ন অনুষ্ঠান উপস্থাপনায়ও বেশ সুনাম রয়েছে তার। কর্মস্থলে একাধিকবার তিনি বার্ষিক সাধারণ সভা উপস্থাপনা করে বিশেষ খ্যাতি অর্জন করেছেন। উপস্থাপনা করে সুনাম অর্জন করেছেন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকেও। ২০০৫ সালে এটিএন তারকা হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন ইসমত নাজ ববি। তবে আর্কিটেক্ট হওয়ার স্বপ্ন পূরণ করতে গিয়ে মিডিয়াতে আর কাজ করা হয়নি। বেসরকারি টেলিভিশনে উপস্থাপনা করার জন্য একাধিকবার ডাক পাওয়ার পরও সময় স্বল্পতার কারণে হয়ে ওঠেনি। তবে উপস্থাপনার আগ্রহ হারিয়ে যায়নি। মূল কাজের ফাঁকে সময় বের করতে পারলেই টিভিতে খবর পাঠ ও উপস্থাপনায় নেমে পড়বেন বলে জানান ইসমত নাজ ববি।
চাকরি ও পড়াশোনার চাপের মধ্যেও নিজের সন্তান, মা ও ভাই-বোনদের সময় দিচ্ছেন ববি। যমজ কন্যা সন্তানের জননী তিনি। মা ও ভাই-বোনের সংসার এবং নিজ সন্তানদের পড়াশোনার খোঁজ রাখাÑ এসব তার নিয়মিত রুটিন কাজ। ববির মতে, একজন নারী চাইলেই পারেন তার লক্ষ্যে পৌঁছে সেটা সকল নারীর মাঝে ছড়িয়ে দিতে। পাশাপাশি নারীদের সঙ্গে নিয়ে নিজের ও সমাজের উন্নতিতে জোরালো ভূমিকা রাখতে।
ববি বলেন, প্রতিটি মানুষেরই স্বপ্ন থাকে। কিন্তু স্বপ্নের পথে পা বাড়ালেই একের পর এক আসতে থাকে হাজারো প্রতিবন্ধকতা। যে ব্যক্তি এসব প্রতিবন্ধকতাকে পায়ে ঠেলে সামনে এগিয়ে যেতে পারেন তিনিই সফল হন। ববি বলেন, দেখা যাবে প্রতিটি সফল মানুষের পেছনেই কিছু গল্প আছে, যা অনেকটা রূপকথার মতো। আর সেসব গল্প থেকে মানুষ খুঁজে নেয় স্বপ্ন দেখার সম্বল, এগিয়ে যাওয়ার নতুন অনুপ্রেরণা। পৃথিবীতে যারা সাফল্যের সর্বোচ্চ শিখরে আরোহণ করেছেন, তাদের অনেকেরই চলার পথ মসৃণ ছিল না। তাদের অনেকেই জীবনের কোনো না কোনো পর্যায়ে পড়েছেন নানা ধরনের সংকটে। কিন্তু অদম্য ইচ্ছাশক্তি, পরিশ্রম, সাহস আর একাগ্রতার ফলে তারা দমে যাননি।
এক প্রশ্নের জবাবে ববি বলেন, অসহায় নির্যাতিত নারীদের পাশে থাকতে চান তিনি। দূরবর্তী হিমালয়ের মতো নারী সমাজকে দেখতে চান। বর্তমানে দেশের প্রধানমন্ত্রী একজন নারী। জাতীয় সংসদের স্পিকারও একজন নারী। ইসমত নাজ ববি বলেন, ইদানীং বিভিন্ন শ্রেণি-পেশায় সফলভাবে কাজ করছেন আমাদের নারীরা, যা কিছু দিন আগেও ছিল অনেকটা স্বপ্নের মতো। এমনকি এখন অনেক দুঃসাহসিক কাজেও নিয়োজিত আছেন অনেক নারী। কোনো কোনো ক্ষেত্রে স্বীয় মেধা ও যোগ্যতার কারণে নারীরা পুরুষের সাথে সমানতালে পাল্লা দিয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়ার দুর্লভ সম্মানও অর্জন করতে সক্ষম হচ্ছেন। তাই ববিও চান নারীদের পাশে থেকে নিজেকে একজন প্রতিষ্ঠিত নারী হিসেবে গড়ে তুলতে। সে লক্ষ্যে নিরলস কাজ করে চলেছেন ইসমত নাজ ববি। এক্ষেত্রে সকলের সমর্থন ও সহযোগিতা চান ববি।