প্রতিবেদন

যে কারণে মিস ওয়ার্ল্ড মুকুট হারালেন এভ্রিল

স্বদেশ খবর ডেস্ক : ৬৭তম বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতায় প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ অংশগ্রহণের সুযোগ পাওয়ায় সবার মধ্যে বাড়তি আগ্রহ ও কৌতূহল ছিল বৈকি। প্রায় ২৫ হাজার প্রতিযোগীর মধ্যে সেরা ১০ নির্বাচন পর্যন্ত সবকিছু ঠিকঠাক ছিল। কিন্তু তীরে এসেই যেন তরী ডুবল; ২৮ সেপ্টেম্বর আয়োজিত চূড়ান্ত পর্বে এ ১০ জনের মধ্য থেকে যিনি চীনে অনুষ্ঠেয় মিস ওয়ার্ল্ডের মূল আসরে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করার টিকিট পেয়েছেন, তাকে নিয়েই তৈরি হয়েছে বিতর্ক।
বিচারকদের রায় এড়িয়ে ‘লাভেলো মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’-এর অন্যতম আয়োজক প্রতিষ্ঠান অন্তর শোবিজের চেয়ারম্যান স্বপন চৌধুরীর হস্তক্ষেপে জান্নাতুল নাঈম এভ্রিলকে শীর্ষস্থানের মুকুট দেয়া হয়েছেÑ এমন অভিযোগে যখন চারদিক তোলপাড়, ঠিক তখনই জানা গেল অবিশ্বাস্য আরেকটি খবর। মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়ার প্রথম শর্ত ‘প্রতিযোগীকে অবিবাহিত হতে হবে’Ñ এ শর্ত ভেঙেছেন বিতর্কিত ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ জান্নাতুল নাঈম এভ্রিল।
জানা গেছে, এ মডেল ক্যারিয়ার শুরুর বহু আগেই অর্থাৎ আজ থেকে প্রায় পাঁচ বছর আগে ২০১৩ সালে মোহাম্মদ মুনজুর উদ্দিন নামের এক ব্যবসায়ীকে বিয়ে করেছিলেন। ফলে নানা দিক থেকে এভ্রিলের ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ খেতাবটি কেড়ে নেয়ার দাবিও জোরালো হয়।
এদিকে প্রতিযোগিতাটির চূড়ান্ত পর্বের অন্যতম প্রধান বিচারক ছিলেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ফ্যাশন ডিজাইনার বিবি রাসেল। যিনি মঞ্চে এভ্রিলকে মুকুট পরিয়ে দিয়েছিলেন। তিনি শুরুতে বলেছিলেন, প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় হিসেবে যাদেরকে তিনি রায় দিয়েছেন, তারাই নির্বাচিত হয়েছেন। এমনকি জান্নাতুল নাঈমকে নিয়ে তার মন্তব্য ছিল, ‘মেয়েটা লম্বা, স্মার্ট। আমি তো জানি বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতায় কী চাইবে, এই মেয়েটার মধ্যে ওইসব গুণ আছে। বাংলাদেশ থেকে যখন পাঠাব, এমন একজনকেই তো পাঠাতে চাইব আমরা।’
এ কথার সূত্র ধরে বিবি রাসেল স্বদেশ খবরকে বলেন, ‘আমার সিদ্ধান্তে কোনো ভুল ছিল না। জান্নাতুল নাঈমই মিস বাংলাদেশ হিসেবে যথার্থ।’
এরপর জান্নাতুল নাঈমের বিয়ে হয়েছিল। তিনি বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের শর্ত ভেঙেছেন। এমনসব বিষয় তুলে ধরলে বিবি রাসেলের উত্তর ছিল: ‘মঞ্চে কার কী পারফরম্যান্স, তা দেখে আমি রায় দিয়েছি। কোনো প্রতিযোগী আদৌ শর্ত ভেঙেছে কি না, সেটা দেখার বিষয় আয়োজকদের। এটা নিয়ে আমি কিছু বলতে পারব না।’ এ বিষয়ে অন্তর শোবিজের চেয়ারম্যান স্বপন চৌধুরীর সাথে কথা বলার চেষ্টা করেও তাকে মোবাইল ফোনে পাওয়া যায়নি।
অবশেষে, তথ্য গোপন করার অভিযোগে বাংলাদেশে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ সুন্দরী প্রতিযোগিতায় বিজয়ী জান্নাতুল নাঈম এভ্রিলের শিরোপা বাতিল করেছে আয়োজকরা। ৪ অক্টোবর ঢাকায় এক সংবাদ সম্মেলনে আয়োজকরা জানিয়েছেন, জান্নাতুল নাঈম তার বিয়ে নিয়ে প্রতিযোগিতার আগে মিথ্যা তথ্য দিয়েছিলেন, সেজন্যই তার শিরোপা কেড়ে নেয়া হয়েছে। তার জায়গায় জেসিয়া ইসলাম নতুন মিস বাংলাদেশ হয়েছেন। তিনি এখন মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন।
শিরোপা হারানোর পর জান্নাতুল নাঈম এভ্রিল ফেসবুকে এক পোস্টে বলেন, আপনাদের চোখে চ্যাম্পিয়ন ছিলাম, চ্যাম্পিয়ন আছি এবং আপনাদের ভালোবাসায় থাকবো। যতদিন পর্যন্ত বেঁচে আছি, বাল্যবিবাহ নিয়ে আমি কাজ করবো, যাতে এভাবে আর কোনো মেয়ের স্বপ্ন ভেঙে না যায়।