প্রতিবেদন

নতুন ১০ মডেল স্কুল স্থাপন করবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়

নিজস্ব প্রতিবেদক : ভালো মানের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ওপর থেকে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের চাপ কমাতে রাজধানী ঢাকা ও এর আশপাশে নতুন করে ১০টি মডেল স্কুল স্থাপন করতে যাচ্ছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এতে সরকারের ব্যয় হবে প্রায় ৭০০ কোটি টাকা। ২০২০ সালের মধ্যে এসব স্কুল ভবন নির্মাণের কাজ শেষ হবে। মানসম্মত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর চাপ কমাতে সরকার এ উদ্যোগ নিয়েছে।
ঢাকা শহরে এখন মডেল বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার মতো উপযুক্ত জমির সংকট রয়েছে। তাই ঢাকার খুব কাছাকাছি এসব বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষাদানের উদ্দেশ্যে মডেল বিদ্যালয় স্থাপনের এই ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট প্রপোজাল (ডিপিপি) জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটিতে (একনেক) অনুমোদন পেয়েছে। প্রতিটি বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠায় সরকারের ব্যয় হবে প্রায় ৭০ কোটি টাকা।
এ প্রসঙ্গে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী দেওয়ান মোহাম্মদ হানজালা স্বদেশ খবরকে বলেন, আধুনিক সব সুযোগ-সুবিধা নিয়েই এ প্রতিষ্ঠানগুলো নির্মাণ করা হবে। প্রস্তাব অনুযায়ী প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে রাজধানীর ভালো মানের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ওপর চাপ কিছুটা হলেও কমবে। উপকৃত হবে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা। প্রস্তাবিত স্কুলগুলোতে সব ধরনের আধুনিক সুযোগ-সুবিধাসহ প্রতিটি ভবন হবে ১০ তলা। থাকবে বিজ্ঞানের প্রতিটি বিষয়ের আলাদা ল্যাবরেটরি, কম্পিউটার ল্যাব, অধ্যক্ষের জন্য দ্বিতল বাসভবন। প্রস্তাবিত ১০ সরকারি হাই স্কুল স্থাপনের জন্য প্রাথমিকভাবে নির্ধারিত স্থানগুলো হচ্ছেÑ নবীনগর, ইপিজেড/আশুলিয়া, ধামরাই, পূর্বাচল, হেমায়েতপুর, জোয়ারসাহারা, সাইনবোর্ড, চিটাগাং রোড, শাহজাদপুর/নূরেরচালা ও ইকুরিয়া/ঝিলমিল এলাকা। এ ১০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্থাপনের জন্য ব্যয় ধরা হয়েছে ৬৭৩ কোটি ৪৬ লাখ টাকা।