ফিচার

রেসিপি

সরিষা তেলে ইলিশ তেহারি

তেহারি জীবনে খেয়েছেন অনেক রকম, ইলিশ পোলাও কম খাওয়া হয়নি; কিন্তু ইলিশ মাছের তেহারি খাননি অনেকেই। সরিষার তেলে রান্না করা ইলিশ তেহারি কিন্তু খেতে জম্পেশ। স্বদেশ খবর পাঠকরা চলুন জেনে নিই সরিষার তেলে ইলিশ তেহারি রান্নার একটা অসাধারণ রেসিপি।
উপকরণ : ইলিশ মাছ ১০-১২ পিস, পোলাও চাল ১ কেজি, পিঁয়াজ কুঁচি ১ কাপ, টমেটো সস আধা কাপ, সরিষা তেল ১ কাপ, তেজপাতা ২টি, দারুচিনি দুই টুকরো, এলাচ ৪-৫টি, জয়ফল ১টা, জয়ত্রী ২টা ও লবণ পরিমাণমতো। এছাড়া লাগবে আদা বাটা ১ চা-চামচ, রসুন বাটা ১ চা-চামচ, জিরা বাটা আধ চা-চামচ, পিঁয়াজ বাটা ২ টেবিল চামচ, পিঁয়াজ বেরেস্তা বাটা ২ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ ও ধনেপাতা বাটা ১ চা-চামচ, শুকনো মরিচ বাটা ১ চা-চামচ, সাদা গোলমরিচ ১ চা-চামচ ও সরিষা বাটা ২ চা-চামচ।
প্রস্তুত প্রণালি : প্রথমে চুলায় শুকনো তাওয়া আঁচে বসান। গরম মশলার সব উপকরণ একসঙ্গে তাওয়ায় দিন। ৫ মিনিট নেড়েচেড়ে ভেজে গুঁড়া করে নিন। সব বাটা মশলা একটু পানি দিয়ে একসাথে একটা পাত্রে ভালো করে মেশান। পোলাও চাল ধুয়ে পানি ঝরাতে দিন। ২ লিটার পানি চুলায় গরম হতে দিন। হাঁড়ি চুলায় বসান, গরম হলে আধা কাপ সরিষা তেল দিন। এবার বাটা মশলার মিশ্রণ তেলে দিন ও নাড়তে থাকুন। টমেটো সস ও পরিমাণমতো লবণ দিন। সুগন্ধ বেরোলে মাছ বিছিয়ে দিন; কষিয়ে নিন। এবার পরিমাণমতো গরম পানি দিয়ে ১০ মিনিট সেদ্ধ করুন। মাছ সেদ্ধ হওয়ার পর যখন তেল বেরোবে এবং সামান্য ঝোল থাকবে, তখন চুলা বন্ধ করে দিন। এবার পোলাও রান্নার পালা। অন্য একটি বড় হাঁড়িতে বাকি আধা কাপ সরিষা তেল দিন। তেল গরম হলে আস্ত এলাচ, দারুচিনি, তেজপাতা ছেড়ে দিন। অল্প ভেজে পিঁয়াজ কুঁচি দিন। পিঁয়াজ নরম হলে চাল ছেড়ে দিন। ১৫ মিনিট নেড়েচেড়ে ভাজুন। এবার ওই চালে গরম ২ লিটার পানি দিন। ১ চা-চামচ লবণ দিয়ে হাঁড়ি ঢেকে দিন। চাল ফুটে পানি যখন প্রায় শুকিয়ে আসবে, তখন চুলা বন্ধ করে দিন। একটি পুরু তলার বড় হাঁড়িতে প্রথমে অর্ধেক পোলাও বিছিয়ে দিন। এবার মাছগুলো সাবধানে তুলে পোলাওয়ের ওপর বিছিয়ে দিন, যেন ভেঙে না যায়। কাঁচা মরিচ বিছিয়ে দিয়ে গরম মশলার গুঁড়া ছড়িয়ে দিন। বাকি পোলাও বিছিয়ে দিয়ে উপরে পিঁয়াজ বেরেস্তা ছড়িয়ে দিন। এবার ২ চামচ সরিষা তেল উপরে ছিটিয়ে দিন। এবার চুলার ওপর তাওয়া রেখে তাওয়ার ওপর হাঁড়ি রেখে চুলা জ্বেলে দিন। হাঁড়ির মুখ ঢাকনা দিয়ে লাগিয়ে নিন। চাইলে নরম করে মাখা আটা ঢাকনার কিনারে লাগিয়ে সিলড করে দিতে পারেন। এভাবে অল্প আঁচে রাখুন ২০ মিনিট। একেই বলে দম দেয়া। ব্যস, হয়ে গেল মজাদার ইলিশ তেহারি।

থাই চিকেন সিক্সটি ফাইভ

যাদের থাই খাবার বেশ পছন্দের তারা এই সুস্বাদু খাবারটির সাথে ভালোই পরিচিত। খাবারটি তৈরি করতে কিন্তু বিশেষ তেমন ঝামেলা করতে হয় না। স্বদেশ খবর পাঠকরা খুব সহজেই তৈরি করে নিতে পারেন রেস্টুরেন্টের স্বাদের চিকেন সিক্সটি ফাইভ ঘরে বসেই।
উপকরণ : হাড় ছাড়া কিউব করে কাটা মুরগির মাংস ৫০০ গ্রাম, পৌনে ১ কাপ টক দই, হলুদ গুঁড়া আধা চা-চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, ধনে গুঁড়া আধা চা-চামচ, কারি পাতা ৬টি, কাঁচা মরিচ ৮টি, লাল খাবার রঙ এক চিমটি, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ, আদা বাটা ২ চা-চামচ, রসুন বাটা ২ চা-চামচ, ১ টেবিল চামচ লেবুর রস, ২টি ডিম, ৩ টেবিল চামচ কর্নফাওয়ার, তেল ও লবণ পরিমাণমতো।
প্রস্তুত প্রণালি : প্রথমে মাংস ভালো করে কেটে ধুয়ে নিন। এতে দিন গোল মরিচ, আদা ও রসুন বাটা, লেবুর রস ও কর্নফাওয়ার। মাংস ভালো করে মাখিয়ে মেরিনেট করে রাখুন ১ ঘণ্টা। প্যানে ডুবো তেলে ভাজার জন্য তেল দিয়ে গরম করে অল্প করে মাংস ছেড়ে ভালো করে ভেজে তুলুন। বাটিতে টকদই নিয়ে এতে হলুদ, মরিচ, ধনে গুঁড়া ও খাবার রঙ একসাথে মিশিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে রাখুন। আরেকটি প্যানে সামান্য তেল দিয়ে কারি পাতা দিয়ে ভেজে নিন। এরপর এতে দিন কাঁচামরিচ ফালি। ভালো করে ভেজে নিয়ে এতে দইয়ের মিশ্রণ ও লবণ দিয়ে জ্বাল দিন। মিশ্রণ ফুটে উঠলে এতে ভাজা মাংস দিয়ে দিন। ভালো করে রান্না করুন। একেবারে ঝোল মাখা মাখা হয়ে এলে নামিয়ে নিন। ব্যস, এবার পরিবেশন করুন মজাদার থাই চিকেন সিক্সটি ফাইভ।