ফিচার

ক্ষতিকর উপাদানমুক্ত প্রাকৃতিক কিছু এনার্জি ড্রিংকস

আজকাল বাজারে নানা রকম এনার্জি ড্রিংকস পাওয়া যায়। এগুলোর প্রায় সবগুলোই স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ক্ষতিকর। ক্ষতিকর কেমিক্যাল ও নেশা জাতীয় উপাদান মেশানো থাকে এগুলোর অধিকাংশেই। তাই এগুলো খেয়ে সাময়িক শক্তি পাওয়া গেলেও দীর্ঘমেয়াদি ক্ষতিকর প্রভাবও আছে। বাড়িতেই প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে তৈরি করা যায় এনার্জি ড্রিংকস। শরীর দুর্বল লাগলে কিংবা অসুস্থতার সময় এগুলো খুব দ্রুত এনার্জি ফিরিয়ে দিতে সহায়তা করবে। আসুন জেনে নেই প্রাকৃতিক কিছু এনার্জি ড্রিংকস তৈরির পদ্ধতি।

গ্রিন টি ও মধু
উপকরণ : গ্রিন টি ১ চা-চামচ, মধু ২ টেবিল চামচ।
প্রস্তুত প্রণালি : ১ গ্লাস পানি ফুটিয়ে গ্রিন টির পাতা দিন। ৫-৬ মিনিট ফুটিয়ে নামিয়ে ফেলুন। এরপর দুই টেবিল চামচ মধু দিয়ে ভালো করে নেড়ে কুসুম গরম থাকতেই খেয়ে নিন। গ্রিন টি শরীরকে কিছুক্ষণের মধ্যেই চাঙা করে ফেলে এবং মধুর প্রাকৃতিক উপাদান শরীরে ক্যালরি ও পুষ্টি জোগায়।

আনারস, আদা, পুদিনার জুস
উপকরণ : ১ কাপ তাজা আনারস, ১টা আপেল (খোসাসহ, বীজ ছাড়ানো), আধা চা-চামচ আদা কুচি, এক মুঠো পুদিনা পাতা।
প্রস্তুত প্রণালি : সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ডারে দিয়ে ব্লেন্ড করে ফেলুন। বেশি ঘন মনে হলে একটু পানি মিশিয়ে নিন। এই এনার্জি ড্রিংকটি বেশ দ্রুত শরীরে শক্তি জোগায় এবং হজমে সহায়তা করে।

কমলা, নারিকেল দুধ, দই, মধু
উপকরণ : কমলার রস আধা কাপ, নারিকেল দুধ আধা কাপ, দই আধা কাপ, মধু ২ টেবিল চামচ।
প্রস্তুত প্রণালি : কমলার জুসের সঙ্গে নারিকেলের দুধ, দই ও মধু ভালো করে মিশিয়ে নিন। এই এনার্জি ড্রিংকটি শরীরে দ্রুত শক্তি জোগায়। কমলায় আছে প্রাকৃতিক চিনি, যা শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় ক্যালরির জোগান দেয়, দইয়ে আছে প্রচুর প্রোটিন, যা শরীর গঠনে সহায়তা করে। নারিকেলের দুধে আছে প্রচুর ভিটামিন ও প্রাকৃতিক ফ্যাট। মধু শরীরে তাৎক্ষণিক শক্তি জোগাতে সহায়তা করে।