কলাম

অভিজাত আবাসিক এলাকার রাস্তায় যানজট নিরসন করুন

গুলশান আবাসিক এলাকাটি রাজধানী ঢাকা শহরের একটি অভিজাত এলাকা হিসেবে সুপরিচিত। স্বাধীনতার পূর্ব কাল থেকে বরেণ্য রাজনীতিক, ব্যবসায়ী ও আমলাসহ সমাজের অগ্রসর শ্রেণির লোকজন গুলশান আবাসিক এলাকায় বসবাস করে আসছেন। এখানকার ১০৪ নম্বর সড়কটি সম্পূর্ণ আবাসিক এলাকার মধ্যে পড়েছে। আবাসিক গুরুত্ব বিবেচনা করে এখানে বাসিন্দাদের যাতায়াত ব্যবস্থা সহজ করার লক্ষ্যে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রয়াত মেয়র আনিসুল হক সড়কটিকে পার্কিংমুক্ত সড়ক হিসেবে ঘোষণা করেছিলেন। ওই সড়কের একটি বহুতল আবাসিক ভবনে এতকাল শুধু লোকজন পরিবার-পরিজন নিয়ে বসবাস করছিলেন। কিন্তু গত কয়েক মাস আগে এখানে একটি কোচিং সেন্টার প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। সকাল থেকে রাত ১০টা-১১টা পর্যন্ত আনুমানিক ১০ হাজার ছেলেমেয়ে কোচিং করতে আসে। এত বিপুল সংখ্যক ছাত্রছাত্রীর যাতায়াতের জন্য ব্যবহৃত শতাধিক গাড়ি রাস্তাটির উভয় পাশে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত পার্কিং করে রাখা হয়। ফলে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত সবসময় তীব্র যানজট লেগেই থাকে। লোকজনকে তীব্র যানজটে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।
বর্তমান সরকার কোচিং বাণিজ্যের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ব্যবস্থা গ্রহণ করছে, যা প্রশংসার দাবি রাখে। সরকারের নিষেধ অমান্য করে গুলশানের মতো একটি অভিজাত আবাসিক এলাকায় এত বড় একটি কোচিং সেন্টার পরিচালিত হওয়ার বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক। কোচিং সেন্টারটিকে সরিয়ে গুলশানের ১০৪ নম্বর সড়কটি যানজটমুক্ত করার জন্য কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছি।
এম মঞ্জুর এলাহী
১০/১ গুলশান, ঢাকা