কলাম

যানজট নিরসনে সমন্বিত পরিকল্পনা দরকার

যানজট উন্নয়নের প্রতিবন্ধক। যানজটের কারণে পেশাজীবী মানুষ সঠিক সময়ে কর্মস্থলে যেতে পারছে না। ভোগান্তিতে পড়ছেন কারখানা মালিকরা। অর্থনীতি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। শহর এলাকায় শিক্ষক, শিক্ষার্থী কেউ যথাসময়ে স্কুল-কলেজে পৌঁছাতে পারে না। শিল্পের কাঁচামাল বহনকারী পরিবহন ঠিক সময়ে কারখানায় পৌঁছতে না পারায় উৎপাদন অব্যাহত রাখা কষ্টকর হয়ে দাঁড়িয়েছে। অসহনীয় যানজটের কারণে সাধারণ মানুষ সড়কে ঘণ্টার পর ঘণ্টা আটকে থাকতে বাধ্য হচ্ছে। জীর্ণ পুরনো গাড়ি সড়কে নামানোর ফলে দুর্ঘটনা বাড়ছে। দুর্ঘটনায় পড়ে এগুলো যানজট পরিস্থিতিকে আরো অসহনীয় করে তুলছে। তাই পুরনো গাড়ি ভালোভাবে সংস্কার করে রাস্তায় নামাতে হবে। যানজট সমস্যার আরেকটি কারণ ফুটপাতের দোকানপাট। তাই ফুটপাত ও সড়কের জায়গা দখল করে থাকা এসব দোকান উচ্ছেদ করতে হবে। তাছাড়া সঠিকভাবে ট্রাফিক আইনের প্রয়োগ হচ্ছে না বলে যানজট সমস্যা কমছে না। ব্যস্ততম সড়কে ফ্লাইওভার, ফুটওভার ব্রিজের ব্যবস্থা করতে পারলে যানজট অনেকাংশে কমবে। দুর্ঘটনার কারণে প্রায়ই সড়কে যানজট তীব্র আকার ধারণ করে। সড়ক দুর্ঘটনা রোধে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে। সড়ক নীতিমালা বাস্তবায়নের উদ্যোগ নিলেই যানজট নিরসন সম্ভব। রাস্তা আরো চওড়া করতে হবে। যানজট সমস্যা সমাধানে এখনই যথাযথ ব্যবস্থা নিতে হবে।
তাইফুর রহমান মুন্না
কাছিকাটা, মোরেলগঞ্জ, বাগেরহাট