ফিচার

অ্যান্ড্রয়েড ফোনের মেমোরি স্পেস বাড়ানোর কয়েকটি উপায়

আপনার অ্যান্ড্রয়েড ফোনের মেমোরি স্পেস পূর্ণ হয়ে গেছে? এই নিবন্ধে দেখানো হবে অ্যান্ড্রয়েড ফোনের স্টোরেজ স্থান পুনরুদ্ধারের কিছু উপায়। আজকাল অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহারকারীর অনেকেই এই সমস্যাটির কথা বলে থাকেন যে, তার অ্যান্ড্রয়েড ফোন মেমোরি পূর্ণ হয়ে গেছে এবং নতুন করে অ্যাপ ইনস্টল করা যাচ্ছে না, বা তার ফোনটি স্লো হয়ে গেছে ইত্যাদি। স্বদেশ খবর পাঠকদের জন্য ৪টি ট্রিপস-এর মাধ্যমে অ্যান্ড্রয়েড ফোনের মেমোরি স্পেস বাড়ানোর উপায় বর্ণনা করা হলো, যা আপনার কাজে লাগতে পারে।

ঈষবধৎ ড়ঁঃ ধষষ পধপযবফ ধঢ়ঢ় ফধঃধ
আমরা আমাদের অ্যান্ড্রয়েড ফোনগুলোতে বিভিন্ন ধরনের অ্যাপ ব্যবহার করে থাকি। যখন কোনো একটি অ্যাপ আমাদের কাজে ব্যবহার করি তখন সেই অ্যাপটি সেখান থেকে কিছু ক্যাশ ডাটা সংরক্ষণ রাখে। পরবর্তীতে আরো ভালো পারফরম্যান্স দেয়ার জন্য কিছু ক্যাশ মেমোরি সংরক্ষণ করে রাখে। এখন আপনি যদি ফোনের মেমোরি খালি করতে চান তাহলে প্রথমে আপনার ফোনের ক্যাশ ডাটা রিমুভ করতে হবে।
একটি একক অ্যাপ্লিকেশন থেকে ক্যাশ ডাটা সাফ করার জন্য ঝবঃঃরহমং > অঢ়ঢ়ষরপধঃরড়হং > অঢ়ঢ়ষরপধঃরড়হ গধহধমবৎ এ যান এবং আপনি যে অ্যাপ্লিকেশনটি পরিবর্তন করতে চান তাতে ক্লিক করুন। এবার অ্যাপ্লিকেশন-এর স্টোরেজ মেনুতে আলতো চাপুন এবং অ্যাপ্লিকেশনের ক্যাশ পরিষ্কার করতে পষবধৎ পধপযব তে ক্লিক করুন।
সমস্ত অ্যাপস থেকে ক্যাশ ডাটা সাফ করার জন্য ঝবঃঃরহমং> ঝঃড়ৎধমব এ যান এবং আপনার ফোনে সমস্ত অ্যাপ্লিকেশনের ক্যাশ দূর করার জন্য ঈধপযবফ ফধঃধ তে ক্লিক করুন।
গড়াব ধঢ়ঢ়ং ঃড় ঃযব সরপৎড়ঝউ পধৎফ
অঢ়ঢ়ং সম্ভবত আপনার ফোনে অধিকাংশ স্টোরেজ স্থান গ্রহণ করে থাকে। এর ফলে অ্যান্ড্রয়েড ফোনের ইন্টারনাল মেমোরি খুব দ্রুত ভঁষষ হয়ে যায়। আপনার অ্যান্ড্রয়েড ফোনে অতিরিক্ত স্টোরেজের জন্য একটি সরপৎড়ঝউ কার্ড যোগ করতে পারেন। আপনি আপনার অতিরিক্ত ডাটাসম্পন্ন অ্যাপ্লিকেশনগুলোকে সরপৎড়ঝউ কার্ডে স্থানান্তর করতে পারেন। এতে কিছুটা হলেও ইন্টারনাল মেমোরি বাড়বে।
আপনার অ্যাপটি স্থানান্তর করতে চাইলে, সেটিংস মেনুতে যান এবং অ্যাপ্লিকেশন> অ্যাপ্লিকেশন ম্যানেজারে যান এবং আপনি যে অ্যাপটি সরাতে চান তার ওপর ক্লিক করুন।
এবার যদি অ্যাপটি স্থানান্তর করা যায়, তাহলে আপনি একটি বাটন দেখতে পাবেন যেটি হলো সড়াব ঃড় ঝউ পধৎফ । এটিকে মাইক্রো এসডি কার্ডে স্থানান্তরের জন্য বাটনটিতে ক্লিক করুন। এবার দেখুন আপনার অ্যাপটি স্থানান্তর হয়ে গেছে।
এড়ড়মষব চযড়ঃড়ং ধঢ়ঢ়-এর মাধ্যমে আপনি আনলিমিটেড ছবি, ভিডিও, ফাইল ব্যাকআপ রাখতে পারবেন। একবার আপনার ফটোগুলো ব্যাকআপ হয়ে গেলে, মেমোরি খালি করতে আপনার ডিভাইস থেকে ফাইলগুলো মুছে ফেলতে পারেন।
বিনামূল্যে এসব ক্লাউড স্টোরেজ স্পেস ব্যবহার করার জন্য আপনাকে এড়ড়মষব চযড়ঃড়ং ইধপশ ঁঢ় ্ ঝুহপ চালু করতে হবে। এটি করার জন্য এড়ড়মষব ঢ়যড়ঃড় অ্যাপটি ওপেন করুন এবং ঝবঃঃরহমং > ইধপশ ঁঢ় ্ ঝুহপ করুন এবং এটি চালু করুন। এভাবে আপনার ছবি, ভিডিও, ফাইল গুগল ড্রাইভে স্থানান্তর করার মাধ্যমে আপনার মোবাইলের ইন্টারনাল মেমোরি বৃদ্ধি করতে পারেন।

উড়হিষড়ধফ ঐরংঃড়ৎু উবষবঃব
আপনার ফোনে ডাউনলোড ফোল্ডার আছে যেখানে ছবি, ফাইল, ভিডিওসহ অন্যান্য ফাইলগুলো সংরক্ষণ হয়ে থাকে। এখান থেকে আপনি অপ্রয়োজনীয় ফাইলগুলো ডিলিট করে কিছু স্টোরেজ স্পেস খালি করতে পারেন।
এছাড়াও আপনার ফোন মেমোরি বাড়ানোর জন্য আপনাকে ডাউনলোড হিস্টোরি মুছে ফেলতে হবে। আমরা যে অ্যাপসগুলো দিয়ে বিভিন্ন ওয়েবসাইট ব্রাউজ করি এবং বিভিন্ন কিছু ডাউনলোড করে থাকিÑ যার ফলে সেখানে ডাউনলোড হিস্টোরি তৈরি হয়। এই ডাউনলোড হিস্টোরিগুলো আপনার ফোনের অনেক মেমোরি স্পেস দখল করে রাখে। এসব ডাউনলোড হিস্টোরিগুলো মুছে ফেলে আপনার ফোনের মেমোরি স্পেস বাড়াতে পারেন।

অপ্রয়োজনীয় অ্যাপস মুছে ফেলুন
আপনি যদি ওপরের টিপসগুলো ব্যবহার করে থাকেন তাহলে কিছু স্টোরেজ খালি হবে। এরপরও যদি আপনি মনে করেন আপনার আরো স্টোরেজ স্পেস প্রয়োজন, তাহলে আপনাকে যা করতে হবে তা হলো আপনার ফোনে ব্যবহৃত অ্যাপস থেকে অপ্রয়োজনীয় অ্যাপস মুছে ফেলতে হবে। আপনি চাইলে দেখে নিতে পারেন কোন অ্যাপসগুলো মেমোরির বেশি স্থান দখল করেছে।
কোন অ্যাপ্লিকেশনগুলো সবচেয়ে বেশি স্থান গ্রহণ করছে তা জানার জন্য সেটিংসে যান, সেখান থেকে ঝঃড়ৎধমব > অঢ়ঢ়ং এরপর স্টোরেজ অনুযায়ী সাজানো অ্যাপ্লিকেশনের একটি তালিকা দেখতে পাবেন। বৃহত্তম অ্যাপস-এর তালিকা শীর্ষে দেখা যাবে।
যে অ্যাপ্লিকেশনটি আপনি ব্যবহার করবেন না সেটি মুছে ফেলার জন্য, অ্যাপ্লিকেশনটি আলতো চাপুন এবং তারপর অ্যাপ্লিকেশনটির নামের পাশে ঁহরহংঃধষষ বাটনটি আলতো চাপুন এবং ওকে স্পেস করুন দেখুন আপনার অ্যাপসটি ঁহরহংঃধষষ হয়ে গেছে।