প্রতিবেদন

দেশের নতুন সেনাপ্রধান হলেন জেনারেল আজিজ আহমেদ

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কোয়ার্টার মাস্টার জেনারেল লেফটেন্যান্ট জেনারেল আজিজ আহমেদকে নতুন সেনাপ্রধান নিয়োগ করা হয়েছে। ১৮ জুন প্রতিরা মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ২৫ জুন, বিকেল থেকে এই নিয়োগ আদেশ কার্যকর হবে। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়Ñ ‘বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বিএ ২৪২৪ লেফটেন্যান্ট জেনারেল আজিজ আহমেদকে ২৫ জুন অপরাহ্ন থেকে জেনারেল পদে পদোন্নতি প্রদানপূর্বক প্রতিরা বাহিনীগুলোর প্রধানদের (নিয়োগ, বেতন-ভাতা এবং অন্যান্য সুবিধা) আইন, ২০১৮ অনুসারে উক্ত তারিখ অপরাহ্ন থেকে ৩ বছরের জন্য বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রধান পদে নিয়োগ প্রদান করা হলো।’ মেজর জেনারেল আজিজ আহমেদ এর আগে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ-বিজিবি’র মহাপরিচালক পদে সফলতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেন। পরে লে. জেনারেল হিসেবে পদোন্নতি পেয়ে তিনি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর আর্মি ট্রেইনিং অ্যান্ড ডকট্রিন্যাল কমান্ডের জিওসি হিসেবে কিছুদিন দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে জেনারেল হিসেবে পদোন্নতি পেয়ে সেনাপ্রধান হওয়ার পূর্বমুহূর্ত পর্যন্ত লে. জেনারেল আজিজ আহমেদ বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কোয়ার্টার মাস্টার জেনারেল হিসেবে সেনা সদর দপ্তরে কর্মরত ছিলেন।
এদিকে প্রতিরা মন্ত্রণালয়ের অপর এক প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী বর্তমান প্রধান জেনারেল আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হক ২৫ জুন অবসরে যাবেন।
১৯৬১ সালে জন্ম নেয়া নয়া সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদের পৈতৃক বাড়ি চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর উপজেলার সুলতানাবাদ ইউনিয়নের টরকী গ্রামে। তার বাবা ওয়াদুদ আহমেদ বিমান বাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা। মোহাম্মদপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাস করার পর তিনি এইচএসসি পাস করেছিলেন নটর ডেম কলেজ থেকে।
২০০৯ সালে বিজিবিতে ঢাকা সেক্টরে প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল পদে পদোন্নতি নিয়ে কুমিল্লা সেনানিবাসে স্থলাভিষিক্ত হন। সেখানে তিনি মেজর জেনারেল পদোন্নতি প্রাপ্ত হয়ে কুমিল্লা সেনানিবাসে জিওসি’র দায়িত্ব পালন করেন। ২০১২ সালে তিনি বিজিবির মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৬ সালে লেফটেন্যান্ট জেনারেল পদে পদোন্নতি পান। এরপর তিনি আরডকের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।
জেনারেল আজিজ আহমেদ সেনাবাহিনীর কোয়ার্টার মাস্টার জেনারেল হিসেবে কাজ করেছেন, তিনি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর আর্মি ট্রেইনিং অ্যান্ড ডকট্রিন্যাল কমান্ডের জিওসি ছিলেন। তিনি বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ-এর মহাপরিচালক ছিলেন। তিনি কুমিল্লা সেনানিবাসে ৩৩ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। জেনারেল আজিজ আহমেদ সীমান্ত ব্যাংক-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন, যা একটি বাণিজ্যিক ব্যাংক এবং বিজিবি ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট-এর একটি যৌথ উদ্যোগ।