প্রতিবেদন

দায়িত্ব নিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের নতুন হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলি ও ইতালির রাষ্ট্রদূত এনরিকো নুনজিয়াতাও

নিজস্ব প্রতিবেদক
রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের কাছে নিজের পরিচয়পত্র পেশ করেছেন বাংলাদেশে ভারতের নতুন হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলি দাস। ৭ মার্চ তার পাশাপাশি ইতালির নতুন রাষ্ট্রদূত এনরিকো নুনজিয়াতাও রাষ্ট্রপতির কাছে পরিচয়পত্র পেশ করেন।
ভারতের হাইকমিশনার ও ইতালির রাষ্ট্রদূতকে বঙ্গভবনে স্বাগত জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, বাংলাদেশ সবার সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ দ্বিপীয় সম্পর্ক রাখার ওপর জোর দেয়। ব্যবসাবাণিজ্য ও বিনিয়োগের েেত্র দ্বিপীয় সম্পর্ককে অগ্রাধিকার দেয়।
রাষ্ট্রপতি আশা প্রকাশ করেন, দূতদের কর্মকালে তাদের নিজ নিজ দেশের সাথে বাংলাদেশের দ্বিপীয় সম্পর্ক আরও সম্প্রসারিত হবে।
ভারতীয় হাইকমিশনারের সঙ্গে সাাতের সময় রাষ্ট্রপতি ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে সমর্থন ও সহযোগিতার জন্য ভারতের জনগণ ও সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান এবং বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের বিদ্যমান সম্পর্ক অত্যন্ত চমৎকার। বাণিজ্য বিনিয়োগসহ বিভিন্ন খাতে এই সম্পর্ক দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।
সড়ক, নৌ ও আকাশপথে কানেক্টিভিটির কথা উল্লেখ করে রাষ্ট্রপতি বলেন, দ্বিপীয় সম্পর্কের ওপর ভিত্তি করে এই যোগাযোগ দুই দেশের জনগণের মধ্যে সম্পর্ক বাড়ানোর েেত্র ভূমিকা রেখেছে।
নতুন ভারতীয় দূত বিভিন্ন েেত্র বিশেষ করে আর্থসামাজিক, যোগাযোগ ও অবকাঠামো খাতসহ বিভিন্ন খাতে বাংলাদেশের উন্নয়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন।
ইতালির রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠকের সময় রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশে বিনিয়োগের অনেক ত্রে আছে উল্লেখ করে ইতালিকে এখানে বিনিয়োগের আহ্বান জানান। বাংলাদেশ-ইতালি সম্পর্ক চমৎকার উল্লেখ করে রাষ্ট্রপতি আশা প্রকাশ করেন, এই সম্পর্ক সামনের দিনগুলোতে নতুন উচ্চতায় যাবে।
এর আগে দুই রাষ্ট্রদূত বঙ্গভবনে পৌঁছলে প্রেসিডেন্ট গার্ড রেজিমেন্টের একটি দল তাদের আলাদাভাবে গার্ড অব অনার প্রদান করে।
একই দিন তানজানিয়া, আজারবাইজান ও উজবেকিস্তানের নতুন রাষ্ট্রদূতরাও বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের কাছে পরিচয়পত্র পেশ করেন।
এর আগে রিভা গাঙ্গুলি দাস বাংলাদেশে নিযুক্ত নতুন ভারতীয় হাইকমিশনার হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের জন্য ১ মার্চ রাতে ঢাকা পৌঁছান। ঢাকায় আসার আগে তিনি ইন্ডিয়ান কাউন্সিল ফর কালচারাল রিলেশন্সের (আইসিসিআর) মহাপরিচালক ছিলেন। পেশাদার কূটনীতিক রিভা ১৯৮৬ সালে ভারতীয় পররাষ্ট্র সেবায় যোগ দেন। তিনি দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। পররাষ্ট্র সেবায় যোগ দেয়ার আগে তিনি দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
রিভা গাঙ্গুলি স্পেন থেকে তার ৩৩ বছরের কূটনৈতিক কর্মজীবন শুরু করেন। এরপর তিনি সদরদফতরে বহিঃপ্রচার, নেপাল এবং পাসপোর্ট ও ভিসা সংক্রান্ত বিভাগে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশনের সাংস্কৃতিক শাখার প্রধান ছিলেন। ঢাকা থেকে ফিরে তিনি ভারতের বিদেশ মন্ত্রালয়ের জাতিসংঘের অর্থনৈতিক ও সামাজিক সম্পর্ক বিভাগের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন এবং জলবায়ু পরিবর্তনসহ অন্যান্য পরিবেশগত সমঝোতায় অংশ নেন।
রিভা নেদারল্যান্ডসের হেগে অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাসের উপ-প্রধানের দায়িত্বে ছিলেন। ২০০৮ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত তিনি সাংহাইয়ে ভারতীয় কনসাল জেনারেল হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। চীন থেকে ফিরে তিনি বিদেশ মন্ত্রণালয়ে জনকূটনীতি বিভাগ এবং ল্যাটিন আমেরিকা ও ক্যারিবিয়ান বিভাগের নেতৃত্ব দেন। তিনি একই সঙ্গে রুমানিয়া, আলবেনিয়া ও মলদোভায় ভারতীয় রাষ্ট্রদূত হিসেবে এবং পরবর্তীতে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে ভারতের কনসাল জেনারেল হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি একাধারে বাংলা, হিন্দি, ইংরেজি ও স্প্যানিশ ভাষায় পারদর্শী।