প্রতিবেদন

পরিচ্ছন্ন ঢাকা গড়তে ডিএনসিসির নতুন মেয়রকে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
শপথ নিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র আতিকুল ইসলাম। গত ৭ মার্চ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর কার্যালয়ে নতুন মেয়রকে শপথবাক্য পাঠ করান।
শপথ নিয়ে নতুন মেয়র বলেন, লোকদেখানোর জন্য তিনি কিছু করতে চান না। প্রধানমন্ত্রী তাকে বলেছেন, তিনি একটি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ঢাকা শহর দেখতে চান।
একই অনুষ্ঠানে ঢাকার উত্তর ও দণি সিটির নতুন ওয়ার্ডগুলো থেকে নির্বাচিত ৫০ জন কাউন্সিলরকে শপথ পড়ান স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম। শপথ নেয়া ৫০ জন নতুন কাউন্সিলরের মধ্যে উত্তরের ২৬ ও দেিণর ২৪ জন। তাদের মধ্যে সংরতি আসনের ১২ জন নারী কাউন্সিলরও রয়েছেন।
নতুন মেয়র ও কাউন্সিলরদের অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে আপনারা তাদের প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন। আমি আশা করব আপনাদের সেই দায়িত্ব ও কর্তব্য শপথ অনুযায়ী পালন করবেন এবং মানুষের কল্যাণে কাজ করবেন।
ঢাকা দণি সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের মতো উত্তর সিটি করপোরেশনের কর্মীদের আবাসনের জন্য ভবন নির্মাণ করা হবে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাদের (দণি সিটির পরিচ্ছন্নতা কর্মী) ৪টি মাল্টিস্টোরেড বিল্ডিং হয়ে গেছে। মোট ১৩টি বিল্ডিং হবে। সেই সঙ্গে উত্তরের পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের জন্য এ ধরনের বিল্ডিংয়ে ফ্যাট বানানোর পরিকল্পনা আমাদের আছে।
সিটি করপোরেশনগুলোকে নিজেদের উপার্জন বাড়িয়ে স্বাবলম্বী হওয়ার পরামর্শ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সিটি করপোরেশনগুলোকে নিজেদের উপার্জন বাড়াতে হবে। নিজের পায়ে দাঁড়াতে হবে। শহরকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের আরও সক্রিয় হতে এবং জনপ্রতিনিধিদের এ বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে। পাবলিক টয়লেট, বাস-রেল স্টেশন যেখানে যা আছে, সবগুলো যেন পরিষ্কার থাকে সেদিকে বিশেষ দৃষ্টি দিতে হবে।
শপথ নেয়ার পর জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন মেয়র আতিকুল ইসলাম। নতুন কাউন্সিলরদের নিয়ে ধানমন্ডি ৩২ নম্বর সড়কে বঙ্গবন্ধু জাদুঘরে যান ঢাকা উত্তরের মেয়র। সেখানে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আজ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ। এই মহান দিনে প্রধানমন্ত্রীর কাছে ডিএনসিসির মেয়র হিসেবে আমি শপথগ্রহণ করেছি।
আতিকুল ইসলাম বলেন, মেয়র হিসেবে তিনি সবাইকে নিয়ে কাজ করতে চান। কাউন্সিলর, রাজনীতিবিদ, খেটে খাওয়া মানুষসহ সমাজের সকল স্তরের মানুষকে নিয়ে সবার জন্য কাজ করতে চান।
পরে নবনির্বাচিত ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম বনানী কবরস্থানে গিয়ে পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট নিহত জাতির পিতার পরিবারের সদস্যদের কবর এবং জাতীয় তিন নেতার কবর জিয়ারত করেন। এছাড়া নিজের বাবা-মা ও ডিএনসিসির প্রয়াত মেয়র আনিসুল হক ও প্যানেল মেয়র মো. ওসমান গনির কবর জিয়ারত করেন তিনি।
৭ মার্চ শপথ নেয়ার পর ১০ মার্চ গুলশান নগর ভবনে প্রথম অফিস করেন ডিএনসিসি মেয়র। মেয়র হিসেবে ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা সম্পর্কে অবহিত করতে প্রথম কার্যদিবসে এক সংবাদ সম্মেলনেরও আয়োজন করেন আতিকুল।
মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ডিএনসিসির প্রত্যেকটি দোকানে একটি করে ময়লার ঝুড়ি এবং ২টি করে ফুলের টব রাখতে হবে। অনুরোধ এবং নির্দেশনা অনুযায়ী এ কাজগুলো যারা করবে তাদের সম্মাননা দেয়া হবে, অন্যথায় ব্যবস্থা নেয়া হবে। পাশাপাশি যারা বাসার ছাদে, ব্যালকনিতে বাগান করবেন তাদের কর অবকাশ সুবিধা দেয়া হবে।
আতিকুল বলেন, একজন মেয়র হিসেবে দায়িত্ব অনেক, তবে সেগুলো স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদি বিবেচনায় বাস্তবায়ন করা হবে। বেশি ভোগান্তির সমস্যাগুলো দ্রুত সমাধানে কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তবে নগরের অন্যতম সমস্যা জলাবদ্ধতা দ্রুত সমাধান সম্ভব নয়। তবে এটি যেন সহনীয় মাত্রায় থাকে সেজন্য প্রয়োজনীয় কাজ চলমান আছে।
মেয়র বলেন, ১৭ মার্চ ডিএনসিসির ৫টি অঞ্চলে শিার্থীদের অংশগ্রহণে পরিচ্ছন্নতা বিষয়ক ক্যাম্পেইন ‘লাভ ঢাকা’ শুরু হবে। বর্জ্য বোঝা নয়, সম্পদে পরিণত করতে কাজ শুরু করা হবে।
উল্লেখ্য, গত ২৮ ফেব্র“য়ারি অনুষ্ঠিত ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) উপ-নির্বাচনে জয়ী হন আওয়ামী লীগের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম। নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনি পান ৮ লাখ ৩৯ হাজার ৩০২ ভোট। আর তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টির প্রার্থী শাফিন আহমেদ পান ৫২ হাজার ৪২৯ ভোট। মেয়র পদে অপর ৩ প্রার্থী এনপিপির আনিসুর রহমান দেওয়ান আম প্রতীক নিয়ে ৮ হাজার ৬৯৫, পিডিপির শাহীন খান বাঘ প্রতীক নিয়ে ৮ হাজার ৫৬০ এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুর রহিম টেবিল ঘড়ি প্রতীক নিয়ে ১৪ হাজার ৪০ ভোট পান।
২০১৭ সালের ৩০ নভেম্বর ডিএনসিসির মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুতে পদটি শূন্য হয়। নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুসারে গত বছরের ২৬ ফেব্র“য়ারি ডিএনসিসির মেয়র পদে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। সীমানা সংক্রান্ত জটিলতা ও একাদশ জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠানের কারণে প্রায় ১ বছর পিছিয়ে ২৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত উপ-নির্বাচনে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও আওয়ামী লীগ মনোনীত আতিকুল ইসলাম জয়ী হয়ে ডিএনসিসির নতুন মেয়র হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন।