প্রতিবেদন

যানজট নিরসনে শেখ হাসিনার ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক
রাজধানী ঢাকার যানজট কমাতে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার নানামুখী উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। রাস্তা নির্মাণ, রাস্তা সংস্কার এবং নতুন নতুন ফাইওভার, আন্ডারপাস ও ওভারপাস নির্মাণের পাশাপাশি আধুনিক সিগন্যালিং ব্যবস্থার প্রবর্তন করাসহ ঢাকায় মেট্রোরেলের সংযোজন করতে যাচ্ছে সরকার।
সর্বশেষ নিজের বহরে থাকা ৫২টি গাড়ির পরিবর্তে ৮টি গাড়ি রাখার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
গত ২৭ ফেব্রুয়ারি জাতীয় সংসদে বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বৈঠকের শুরুতে প্রধানমন্ত্রীর জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।
সংসদে প্রধানমন্ত্রী ট্রাফিক বিভাগের উদ্দেশে বলেন, যারা সিগন্যাল নিয়ন্ত্রণ করেন তাদের বলব, বেশি সময় যেন ট্রাফিক আটকে রাখা না হয়। ডিজিটাল পদ্ধতিতে ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা চালু হলে জনদুর্ভোগ কিছুটা কমবে। শিগগিরই ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে যানবাহন নিয়ন্ত্রণ বন্ধ করে অটোমেটিক এবং রিমোট কন্ট্রোলের সমন্বয়ে ট্রাফিক সিগন্যাল লাইট অনুযায়ী যানবাহন নিয়ন্ত্রণ শুরু করা হবে।
রাজধানীর যানজট প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি বলতে গেলে তো বের হওয়াই ছেড়ে দিয়েছি। আমি বের হলেই ট্রাফিক আটকায়। অফিস ও কোথাও যদি কর্মসূচি থাকে সেখানে ছাড়া আর কোথাও যাওয়াই হয় না এ জন্যই যে, ট্রাফিক যদি আটকে দেয়!
শেখ হাসিনা বলেন, ২০০৯ সালে মতায় আসার পর প্রধানমন্ত্রীর বহরে ৫২টি গাড়ি ছিল; বর্তমানে তা সীমিত করে ৮টি গাড়ি রাখার নির্দেশ দিয়েছি।