ফিচার

রূপচর্চা

ভেষজ উপাদানে ত্বকের সুরা

প্রাকৃতিক নানা উপাদান ত্বকের সুরায় ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এই ভেষজ উপাদানের ব্যবহারে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ে। এর সঙ্গে সৌন্দর্যেও এক নতুন মাত্রা জোগায়। স্বদেশ খবর পাঠকদের জন্য দেয়া হলো সেসব ভেষজ উপাদানের বর্ণনা; যা ব্যবহারে আপনার ত্বক হয়ে উঠবে কোমল ও ঝলমলে।

বাদাম ও কমলালেবু
যদি ব্রণের কারণে মুখে দাগ হয় তাহলে মাত্র ২টি বাদাম পিষে তার মধ্যে দুধ ও ১ চা-চামচ শুকনো কমলা লেবুর গুঁড়া মিশিয়ে আস্তে আস্তে মুখে ওই পেস্টটা লাগান। বেশ কিছুণ রাখার পর ওই প্যাকটা যখন শুকিয়ে যাবে তখন পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। অল্প দিনের মধ্যেই আপনার মুখের সব দাগ দূর হয়ে যাবে।

কাঁচা দুধ ও চন্দন পাউডার
রোদের কারণে অনেক সময় ত্বক পুড়ে যায়। চামড়ায় কালো ছোপ তৈরি হয়। সে েেত্র ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতে ডাবের পানির মধ্যে কাঁচা দুধ, অল্প চন্দন পাউডার, শসার রস, লেবুর রস, বেসন মিশিয়ে একটা প্যাক তৈরি করুন। সপ্তাহে ২ দিন ওই প্যাকটা সারা শরীরে লাগিয়ে বেশ কিছুণ রাখার পরে ধুয়ে ফেলুন। এতে কালো ভাবটা দূর হয়ে যাবে।

চুল পড়া বন্ধ করতে
আজকাল দূষণযুক্ত পরিবেশের কারণে অনেক মানুষেরই কম বয়সে চুল পড়ে যায়। এই সমস্যা কাটাবার জন্য নিম পাতা ও মেথি দানাকে ভালো করে সেদ্ধ করে নিন এবং সেই রসকে চুলের উপরে লাগান। তারপর ভালো করে শ্যাম্পু করে নিলে আপনার চুল পড়ার হার আস্তে আস্তে কমে যাবে।

ত্বকের চটচটে ভাব কমান
অনেকের ত্বক চটচটে হওয়ায় সৌন্দর্য ম্লান হয়ে যায়। ত্বকের এই চটচটে ভাব কমানোর ব্যাপারে বিশেষ কার্যকরী হলো শসা, তেঁতুল ও টমেটো। এবার এগুলোকে একসাথে নিয়ে ভালো করে পিষে নিন। এই মিশ্রণটিকে ত্বকের উপরে লাগান। ১৫ মিনিট রেখে ঠা-া পানি দিয়ে গোসল করে ফেলুন।

ত্বককে সংক্রমণ থেকে রা করুন
মুখে বা ত্বকের অন্যান্য স্থানে যদি কোনো প্রকারের সংক্রমণ হয়, তাহলে আপনি সহজ উপায়েই এর সমাধান করতে পারেন। ত্বকের যে স্থানে সংক্রমণ হয়েছে সেই স্থানে দুধের সরের সাথে কিছু পরিমাণে হলুদ মিশিয়ে লাগান। কিছু দিনের মধ্যে তস্থান ঠিক হয়ে যাবে।

ত্বককে মোলায়েম করে তুলুন
আপনার ত্বক যদি খসখসে ধরনের হয় তাহলে অনেক সমস্যায় পড়তে হয়। ত্বকের এই অবস্থা দূর করার পদ্ধতি হলো সেদ্ধ আপেলের সাথে গোলাপ জল ও লেবুর রস মিশিয়ে নিয়ে মুখের উপরে প্রলেপ লাগিয়ে নিন। কিছুণ পর ঠা-া পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নেবেন।
ত্বকের মৃত অংশ দূর করুন
অনেকের ত্বকের উপরের অংশের কোষগুলো শুকিয়ে যায়। যার ফলে ত্বকের সজীবতা অনেকাংশেই কমে যায়। এই সমস্যার সমাধানে প্রথমে দুধের সাথে সামান্য পরিমাণ লবণ মিশিয়ে নিন। তারপর মিশ্রণটিকে ত্বকের উপরে মালিশ করতে থাকুন। মালিশ হয়ে যাবার পর আলু টুকরো করে কেটে দুধ ও লবণের মিশ্রণে ভিজিয়ে আবার মালিশ করুন।

সহজ উপায়ে ব্রণ কমান
অনেকে সুন্দরী হলেও ব্রণের সমস্যার জন্য তাদের রূপ প্রকাশিত হতে পারে না। এ সমস্যাকে খুব সহজ ঘরোয়া উপায়ে মেটানো সম্ভব। এর জন্য পরিষ্কার আটার সাথে কিছু পরিমাণ মধু, পাতিলেবুর রস ও বাদাম বাটা মিশিয়ে নিন। এবার মিশ্রণটিকে প্রতিদিন মুখে প্রলেপের মতো করে লাগাতে থাকুন। কয়েক সপ্তাহ এই নিয়ম মেনে চললে আপনার ব্রণ সমস্যা একেবারে কমে যাবে।

মুখের রঙ ফর্সা করুন
মালাই আর গোলাপ জল মিশিয়ে হালকা ম্যাসেজের মাধ্যমে মুখে লাগান। এটা ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে সাহায্য করবে। দুধ আর মধু মিশিয়ে ধীরে ধীরে ঘাড়, হাত ও পায়ে মালিশ করুন। এতে ত্বক নমনীয় হবে।
পেঁপে ভালো করে চটকে এর মধ্যে মধু ও দুধ মিশিয়ে ফেস প্যাক তৈরি করুন। এই প্যাকটা মুখে ও হাতে লাগিয়ে কিছুণ রাখার পর ধুয়ে ফেলুন। এতে ত্বকের সব ময়লা দূর হয়ে যাবে।