প্রতিবেদন

নকল ও ভেজাল ওষুধের বিরুদ্ধে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের অভিযান

ভেজাল ও নকল ওষুধবিরোধী নিয়মিত তৎপরতার অংশ হিসেবে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের উদ্যোগে রাজধানীর মিটফোর্ড এলাকায় অভিযান চালানো হয়েছে। ২৩ মে বেলা ১১টা হতে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত এ অভিযান চলে। অভিযানে নেতৃত্ব দেন ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মাহবুবুর রহমান। অভিযানে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা প্রদান করে র‌্যাবের একটি চৌকস দল। অধিদপ্তরের ৪০ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীও নিজ নিজ দায়িত্ব পালন করেন।
অভিযানে নূরপুর মেডিসিন মার্কেটে কয়েকটি ফার্মেসি পাওয়া যায়, যেখানে শুধু ফিজিশিয়ান স্যাম্পল বিক্রি করা হয়, আইন অনুযায়ী যা একেবারেই নিষিদ্ধ। এছাড়াও একটি বাড়ির খাটের নিচে কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের নকল ওষুধ পাওয়া যায়। বাবুবাজার ও মিটফোর্ডের কয়েকটি ফার্মেসিতে প্রচুর পরিমাণ আনরেজিস্টার্ড ওষুধ পাওয়া যায়।
এ সময় নানা অনিয়মের কারণে ১৩টি ফার্মেসির মালিককে ২৪ ল ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। সিলগালা করা হয় ৪টি ফার্মেসি। আর ৩ ব্যক্তিকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদ- দেয়া হয়।
মোবাইল কোর্টে বিপুল পরিমাণ আনরেজিস্টার্ড ওষুধ, ফিজিশিয়ান স্যাম্পল ও নকল ওষুধ জব্দ করা হয়, যার আনুমানিক মূল্য ১ কোটি টাকা।
ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মাহবুবুর রহমান এ ধরনের অভিযান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি সারাদেশে এ ধরনের অভিযান পরিচালনা করে দেশ হতে নকল ও ভেজাল ওষুধ নির্মূল করার অঙ্গীকার করেন। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি