ফিচার

অমলেট স্যান্ডউইচ ও চিকেন পরোটা রোল

স্বদেশ খবর ডেস্ক
প্রতিদিন সকালে নাশতার মেন্যুতে কী থাকবে, তাই নিয়ে আমরা অনেক দ্বিধার মধ্যে পড়ে যাই। আবার প্রতিদিন নাশতায় একই খাবার ভালোও লাগে না।
এখানে সকাল বা বিকেলের নাশতায় বা শিশুদের টিফিনের জন্য খুবই সহজ ও ঝটপট ২টি রেসিপি দেয়া হলো। অমলেট স্যান্ডউইচ ও চিকেন পরোটা রোল শিশুরা অনেক পছন্দ করে। স্বদেশ খবর পাঠকরা জেনে নিন, কীভাবে বানাবেন মজাদার রেসিপিগুলো।

অমলেট স্যান্ডউইচ

উপকরণ: ডিম ৪টি, পিঁয়াজ কুচি চার টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ কুচি ৪-৫টা, ধনেপাতা কুচি চার চা চামচ, টমেটো কুচি চার চা চামচ, গোল মরিচের গুঁড়া দুই চা চামচ, লবণ পরিমাণমতো, টমেটো ক্যাচাপ, মাখন, তেল, চিজ স্লাইস ৪টি, পাউরুটি ৮ টুকরা।
প্রস্তুত প্রণালি: প্রথমে একটি পাত্রে ডিম, পিঁয়াজ কুচি, কাঁচা মরিচ কুচি, টমেটো কুচি, ধনেপাতা কুচি, গোলমরিচের গুঁড়া ও পরিমাণমতো লবণ দিয়ে ডিমগুলো ভালো করে ফেটে নিন। এরপর অমলেটগুলো ভাজার আগে রুটিগুলো তৈরি করে নিন। চারটি পাউরুটির এক সাইডে টমেটো ক্যাচাপ লাগিয়ে নিন এবং বাকি চারটি পাউরুটির এক সাইডে মাখন লাগিয়ে নিন। এরপর একটা প্যানে পরিমাণমতো তেল গরম করে নিন। এরপর এই তেলের মধ্যে ডিমের মিশ্রণটা দিয়ে চার কোণা করে চারটি ডিম ভেজে নিন। এরপর টমেটো ক্যাচাপ লাগানো পাউরুটিগুলোতে টমেটো ক্যাচাপের ওপর একটা চিজ স্লাইস এবং একটা করে ভেজে রাখা ডিম দিয়ে দিন। এরপর মাখন লাগানো পাউরুটিগুলো ডিমের ওপর দিয়ে দিন। একটি প্যানে অল্প একটু মাখন গরম করে নিন। এরপর তৈরি করে রাখা স্যান্ডউইচগুলো হালকা চেপে চেপে এপিঠ-ওপিঠ করে ভেজে নিন। এরপর স্যান্ডউইচগুলো কোনাকুনি করে কেটে নিন। এবার পরিবেশন করুন মজাদার ডিমের অমলেট স্যান্ডউইচ।

চিকেন পরোটা রোল

উপকরণ: ডিম ২টি, লবণ পরিমাণমতো, পিঁয়াজ কুচি ১ টেবিল চামচ, টমেটো কুচি ১ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচ কুচি ১ চা চামচ, ধনে পাতা কুচি ১ চা চামচ, লেবুর রস ১ চা চামচ, চিকেন ১ কাপ পরিমাণ, আদা বাটা আধা চা চামচ, রসুন বাটা আধা চা চামচ, হলুদের গুঁড়া সামান্য, গরম মশলা গুঁড়া, টক দই ২ চা চামচ, আধা চা চামচ, লাল মরিচের গুঁড়া ১ চা চামচ, ধনে গুঁড়া আধা চা চামচ, জিরা গুঁড়া আধা চামচ, ঘি ১ চা চামচ, ময়দা ২ কাপ, ইয়োগা সস পরিমাণমতো, শসা পরিমাণমতো।
প্রস্তুত প্রণালি: বাটিতে তিনটি ডিম ভেঙে এর মধ্যে পরিমাণমতো লবণ, পিঁয়াজ কুচি, টমেটো কুচি, কাঁচা মরিচ কুচি ও ধনে পাতা কুচি দিয়ে ভালোভাবে ফেটিয়ে নিতে হবে। এবার হাড় ছাড়া চিকেন মেরিনেট করতে চিকেনের টুকরোগুলো পাতলা করে কেটে এর মধ্যে লবণ, আদা ও রসুন বাটা দিয়ে দিতে হবে। কালার ভালো আনার জন্য সকল গুঁড়া মশলাসহ লেবুর রস ও টক দই দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে আধা ঘণ্টার জন্য রাখতে হবে। বেশি কালারের জন্য কমলা ফুড কালারও ব্যবহার করতে পারেন। এবার চুলায় প্যান বসিয়ে এক চা চামচের মতো ঘি দিয়ে এর মধ্যে মেরিনেট করে রাখা চিকেনের টুকরাগুলো বিছিয়ে দিতে হবে। যখন মাংসগুলো থেকে পানি বের হওয়া শুরু করবে তখন এগুলো উলটে দিন। মাংসগুলোর পোড়া পোড়া করে ভাজতে হবে। চিকেনগুলো ভাজা হয়ে গেলে তুলে নিতে হবে। আপনি চাইলে এ চিকেনগুলোতে কয়লার ধোঁয়া দিয়ে তন্দুরি চিকেনের মতো ফেভার নিয়ে আসতে পারেন।
এবার পরোটা তৈরির পালা। দুই কাপ ময়দা দিয়ে পরোটার খামি বানিয়ে ২০ মিনিট রেখে দিতে হবে। তারপর একটু বড় বড় করে পাতলা পরোটা তৈরি করতে হবে। পরোটা বেলে এর উপরে সামান্য তেল মাখিয়ে একটু ময়দা দিয়ে দিতে হবে, যাতে করে ভাঁজ করলে এক পাশ অন্য পাশের সঙ্গে না মিলে যায়। এবার পরোটাগুলো ভেজে নিতে হবে। এ জন্য একটি প্যান গরম করে এর ওপর একটা একটা করে পরোটা দিয়ে ভেজে নিতে হবে। চুলার আঁচ মিডিয়ামের থেকে বেশি রাখা যাবে না। এবার গুলে রাখা ডিমের কিছু পরোটার উপরের অংশে দিতে হবে। সোনালি কালার করে ভেজে নিন। এমনভাবে ভাজতে হবে যেন পরোটার সঙ্গে ডিম মিশে যায়। পরোটা ভাজা হলে তুলে নিতে হবে। এর ওপর দিতে হবে ইয়োগার সস, এর ওপর কেটে রাখা পিঁয়াজ, পিঁয়াজের ওপর ভেজে রাখা চিকেন ও শসা দিয়ে পরোটা রোল করে নিতে হবে।