প্রতিবেদন

ডিএমপি’র নতুন কমিশনার হলেন শফিকুল ইসলাম

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন অতিরিক্ত আইজিপি মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম। ২৮ আগস্ট স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে তাকে এই দায়িত্ব দেয়া হয়। সর্বশেষ তিনি সিআইডি প্রধানের দায়িত্ব পালন করেন। ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়ার দায়িত্বের মেয়াদ আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। ১৪ সেপ্টেম্বর ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়ার স্থলাভিষিক্ত হবেন শফিকুল ইসলাম।
তিনি অতিরিক্তি পুলিশ কমিশনার এবং পুলিশ কমিশনার হিসেবে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন। অত্যন্ত দক্ষতা ও সুনামের সঙ্গে তিনি ডিআইজি, চট্টগ্রাম রেঞ্জ এবং ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।
২০১৭ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর তিনি পদন্নোতি পেয়ে এডিশনাল আইজিপি হিসেবে এন্টি টেররিজম ইউনিট, ঢাকায় যোগদান করেন। ২০১৮ সালের ২০ নভেম্বর এডিশনাল আইজিপি হিসেবে পুলিশ হেডকোয়ার্টাসে এবং সর্বশেষ তিনি গত ২০১৯ সালের ১৬ মে অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) প্রধান হিসেবে যোগদান করেন।
কর্মক্ষেত্রে অনন্য পেশাদারিত্ব, সততা ও সুনিপুণ দক্ষতার স্বীকৃতিস্বরূপ তিনি পরপর দু’বার বাংলাদেশ পুলিশের সর্বোচ্চ পুরস্কার বিপিএম পদক লাভ করেন। ২০১৪ সালে ডিআইজি, চট্টগ্রাম রেঞ্জ এবং ২০১৭ সালে ডিআইজি, ঢাকা রেঞ্জে দায়িত্ব পালনকালে তিনি এই পদক লাভ করেন।
চাকরিজীবনে তিনি বুনিয়াদী কোর্স, ওরিয়েনটেশন কোর্স, এইড-টু-গুড ইনভেস্টিগেশন, কমান্ড অফিসার্স ইনভেস্টিগেশন অ্যান্ড কোর্ট কোর্স, সার্ভে অ্যান্ড সেটেলমেন্ট ট্রেনিং, ন্যাশনাল অ্যান্ড ইকোনমিক ক্রাইম কোর্স, সিনিয়র ম্যানেজমেন্ট কোর্স, পেশাগত ডেভেলপমেন্ট প্রোগামসহ দেশে-বিদেশে গুরুত্বপূর্ণ কোর্স সম্পন্ন করেন।
শফিকুল ইসলাম ৮ম বিসিএসের মাধ্যমে বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেন। মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার নওদাবন্ড বিল দোয়ারপাড়া গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে ১৯৬২ সালে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম মো. শওকত আলী ও মায়ের নাম বেগম সুফিয়া খাতুন। মোহাম্মদ শফিকুল ইসলামের সহধর্মিণী খাদিজাতুল কুবরা একজন গৃহিণী। তিনি সাবিহা শ্রাবন্তী ইসলাম ও সুরাইয়া শেমন্তী ইসলাম নামে দুই কন্যার জনক।