ফিচার

লিপস্টিক ব্যবহারের আগে-পরে

ঠোঁট নারীর একটি আকর্ষণীয় অঙ্গ। নারীমাত্রই ঠোঁটে লিপস্টিক দেবেন। তবে লিপস্টিক দেয়ারও নানা নিয়মকানুন আছে। কোন রঙের পোশাকের সঙ্গে কোন রঙের লিপস্টিক ঠোঁটে লাগাবেন, তা না জানলে চেহারায় উদ্ভট ভাব চলে আসতে পারে।
লিপস্টিক ব্যবহারের আগে-পরে যা করতে হবে সে বিষয়ে স্বদেশ খবর পাঠকদের জন্য রূপবিশেষজ্ঞ সাবিনা ইয়াছমিন জানিয়েছেন নানা তথ্য।

লিপস্টিক দেয়ার আগে
ক্স রুক্ষ-শুষ্ক ঠোঁটে লিপস্টিকের সৌন্দর্য অনেকটাই ম্লান হয়ে যায়। দীর্ঘক্ষণ ঠোঁট নরম রাখতে লিপস্টিক দেয়ার আগে ঠোঁটে বেশি করে পেট্রোলিয়াম জেলি লাগান। এবার আঙুলের ডগায় চিনি লাগিয়ে ঠোঁটে ম্যাসাজ করুন। চিনি গলে গেলে ঠোঁট মুছে তারপর লিপস্টিক লাগান।
ক্স ঠোঁটে লিপস্টিকের সঠিক রঙ পাওয়া বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই একটু কঠিন হয়। বিশেষ করে যাদের ঠোঁটের রঙ একটু গাঢ়, তাদের লিপস্টিকের সঠিক রঙ পাওয়া যায় না। এ ক্ষেত্রে লিপস্টিক লাগানোর আগে ঠোঁটে একটু কনসিলার বা ফাউন্ডেশন লাগিয়ে তার ওপর লিপস্টিক লাগান। সঠিক শেড পাবেন।
ক্স গরমের দিনে ঘাম ও গরমে লিপস্টিক ঠোঁটের চারপাশে ছড়িয়ে যেতে পারে। লিপস্টিক দেয়ার আগে ঠোঁটের চারপাশে অল্প পাউডার লাগান। লিপস্টিক ঠোঁটের বাইরে ছড়াবে না।
ক্স ঠোঁটের আকৃতি অনুযায়ী ঠিকভাবে লিপস্টিক লাগাতে প্রথমে সরু লিপলাইনার দিয়ে ঠোঁট এঁকে নিন। লিপলাইনারের রঙ লিপস্টিকের রঙ থেকে এক শেড হালকা হবে। এবার লিপস্টিক লাগান।
ক্স ঠোঁট বেশি শুষ্ক হলে লিপস্টিকের ওপর ময়েশ্চারাইজারসমৃদ্ধ লিপগ্লস ব্যবহার করুন।
ক্স লিপস্টিক যেন দাঁতে লেগে না যায় সে জন্য একটি আঙুল দুই ঠোঁটের মাঝখানে রেখে ঠোঁট গোল করুন। বাড়তি লিপস্টিক আঙুলে লেগে যাবে, দাঁতে লিপস্টিক লাগার আশঙ্কা থাকবে না।
ক্স তৈলাক্ত ঠোঁটে লিপস্টিক বেশিক্ষণ স্থায়ী হয় না। দেয়ার কিছুক্ষণ পরই লিপস্টিক ফিকে হয়ে যায়। লিপস্টিক স্থায়ী করতে লিপস্টিক লাগানোর পর একটা টিস্যু পেপার ঠোঁটে চেপে ধরুন। এবার টিস্যুর ওপর দিয়ে ঠোঁটের অংশে পাউডারের প্রলেপ দিন। টিস্যু সরিয়ে আরেক পরত লিপস্টিক লাগান। ব্যস, নিশ্চিন্তে সারা দিনের জন্য বেরিয়ে পড়–ন।

লিপস্টিক দেয়ার পর
ক্স ত্বকের জন্য ক্ষতিকর না হলেও দীর্ঘদিন নিয়মিত ব্যবহারে লিপস্টিকের কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে। তাই লিপস্টিক ব্যবহারে একটু সতর্কতা মেনে চলতে হবে। এ ছাড়া প্রয়োজন ঠোঁটের খানিকটা বাড়তি যতœ।
ক্স লিপস্টিক লাগানোর পর ঠোঁটে হাত দেবেন না। জিব ঠোঁটে লাগাবেন না। অনেকেরই ঠোঁট কামড়ানোর অভ্যাস রয়েছে। সুন্দর ঠোঁট চাইলে এ অভ্যাসও বাদ দিতে হবে।
ক্স বাইরে থেকে ফিরে সঠিক নিয়মে লিপস্টিক তুলে ফেলুন। প্রথমে পুরু করে ভ্যাসলিনের প্রলেপ দিন। কয়েক মিনিট পর প্রথমে টিস্যু দিয়ে তারপর ভেজা তোয়ালে দিয়ে ভালোভাবে ঠোঁট মুছে নিন। এর পরও ঠোঁটে লিপস্টিকের রঙ থেকে যেতে পারে, বিশেষ করে ম্যাট লিপস্টিক হলে। সে ক্ষেত্রে ঠোঁটে অলিভ অয়েল বা নারিকেল তেলের সঙ্গে খানিকটা চিনি মিশিয়ে ঠোঁটে ম্যাসাজ করুন। সব শেষে ধুয়ে-মুছে ময়েশ্চারাইজার লিপবাম লাগান।
ক্স ঠোঁটের সুস্বাস্থ্যের জন্য দিনে দুইবারের বেশি লিপস্টিক ব্যবহার না করাই ভালো। এছাড়া প্রতিদিন লিপস্টিক লাগানোও কিন্তু ঠিক নয়।