প্রতিবেদন

বাংলা একাডেমির ফেলোশিপ পেলেন ৭ বিশিষ্ট ব্যক্তি, ৫ জন সাহিত্য পুরস্কার

বাংলা একাডেমির সাধারণ পরিষদের ৪২তম বার্ষিক সভা ২৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় একাডেমির ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বার্ষিক প্রতিবেদন উপস্থাপন করা হয়। ফেলোশিপ প্রদান করা হয় ৭ বিশিষ্ট ব্যক্তিকে। গদ্য ও কবিতায় বাংলা একাডেমি পরিচালিত ৫টি পুরস্কারও এ দিন প্রদান করা হয়।
সভায় একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বার্ষিক প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন। একাডেমির সচিব মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেট পেশ করেন। একাডেমির সদস্যবৃন্দ বার্ষিক প্রতিবেদন ও বাজেট সম্পর্কে সাধারণ আলোচনায় অংশ নেন। মহাপরিচালক সদস্যদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন এবং উত্থাপিত প্রস্তাবের প্রেেিত বক্তব্য প্রদান করেন।
সভায় দেশের বিভিন্ন েেত্র গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ৭ বিশিষ্ট ব্যক্তিকে বাংলা একাডেমি সম্মানসূচক ফেলোশিপ প্রদান করা হয়। ২০১৯ সালের বাংলা একাডেমি সম্মানসূচক ফেলোশিপপ্রাপ্তরা হলেন সৈয়দ আনোয়ার হোসেন (শিা ও গবেষণা), শেখ মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ (প্রকৌশল); জাতীয় অধ্যাপক ব্রিগেডিয়ার আব্দুল মালিক (অব.) (চিকিৎসাসেবা), কুমুদিনী হাজং (সমাজসেবা), কাঙ্গালিনী সুফিয়া (সংগীত), আলী যাকের (সংস্কৃতি) ও আসাদুজ্জামান নূর (সংস্কৃতি)।
ব্রিগেডিয়ার আব্দুল মালিক (অব.), কুমুদিনী হাজং, কাঙ্গালিনী সুফিয়া ও আলী যাকেরের অনুপস্থিতিতে তাদের পরিবারের সদস্যবৃন্দ ফেলোশিপ গ্রহণ করেন।
সভায় বাংলা একাডেমি পরিচালিত ২০১৯ সালের ৫টি সাহিত্য পুরস্কার প্রদান করা হয়। সাহিত্যিক মোহাম্মদ বরকতুল্লাহ প্রবন্ধসাহিত্য পুরস্কার পেয়েছেন প্রাবন্ধিক গবেষক ফরহাদ খান। মযহারুল ইসলাম কবিতা পুরস্কার পেয়েছেন কবি মহাদেব সাহা। সা’দত আলি আখন্দ সাহিত্য পুরস্কার পেয়েছেন কথাসাহিত্যিক পাপড়ি রহমান। মেহের কবীর বিজ্ঞানসাহিত্য পুরস্কার পেয়েছেন অধ্যাপক শিশিরকুমার ভট্টাচার্য। নিসর্গ আখ্যান গ্রন্থের জন হালীমা-শরফুদ্দীন বিজ্ঞান পুরস্কার পেয়েছেন মোকারম হোসেন।
সাহিত্যিক মোহম্মদ বরকতুল্লাহ প্রবন্ধসাহিত্য পুরস্কারের অর্থমূল্য ১ লাখ টাকা, মযহারুল ইসলাম কবিতা পুরস্কারের অর্থমূল্য ১ লাখ টাকা, মেহের কবীর বিজ্ঞানসাহিত্য পুরস্কারে অর্থমূল্য ১ লাখ টাকা, সা’দত আলি আখন্দ সাহিত্য পুরস্কারের অর্থমূল্য ৫০ হাজার টাকা এবং হালীমা-শরফুদ্দীন বিজ্ঞান পুরস্কারের অর্থমূল্য ৩০ হাজার টাকা।
পুরস্কার ও ফেলোশিপপ্রাপ্ত গুণীজণ এবং তাদের প্রতিনিধিদের হাতে পুরস্কারের অর্থমূল্য, সম্মাননাপত্র, সম্মাননা-স্মারক ও ফুলেল শুভেচ্ছা তুলে দেন একাডেমির সভাপতি অধ্যাপক আনিসুজ্জামান এবং মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী।