খেলা

রাজশাহীর শ্রেষ্ঠত্বের মধ্য দিয়ে বিপিএল উন্মাদনার সমাপ্তি

ক্রীড়া প্রতিবেদক
রাজশাহীর শ্রেষ্ঠত্বের মধ্য দিয়ে ১৭ জানুয়ারি রাতে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উন্মাদনা শেষ হয়েছে। ব্যাটিং ও বোলিংয়ে শেষ ৩ ওভারে ব্যবধান গড়ে দিয়ে মুশফিকের খুলনা টাইগার্সকে হারিয়ে বিপিএলের চ্যাম্পিয়ন হলো আন্দ্রে রাসেলের রাজশাহী রয়্যালস।
আগের ৬ বিপিএলে ৪ বার মাশরাফি বিন মর্তুজা এবং ১ বার করে সাকিব আল হাসান ও ইমরুল কায়েস জিতেছেন শিরোপা। সপ্তম আসরে এসে প্রথমবারের মতো বিপিএল শিরোপা বিদেশি কোনো অধিনায়কের হাতে উঠল।
আগে ব্যাট করে ৪ উইকেটে ১৭০ রান তুলেছিল রাজশাহী। খুলনা নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে থেমেছে ৮ উইকেটে ১৪৯ রানে। ২১ রানের জয় রাজশাহীর। দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে ম্যাচ ও টুর্নামেন্টসেরা দুটিই হয়েছেন আন্দ্রে রাসেল।

শীর্ষ রানে রুশো, অল্পের জন্য
হাতছাড়া মুশফিকের
এই টুর্নামেন্টে শেষ ম্যাচ পর্যন্ত ব্যাটিংয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন খুলনা ও রাজশাহীর ব্যাটসম্যানরা। তবে শীর্ষ রান সংগ্রাহক হয়ে শেষ করেছেন খুলনার রাইলে রুশো।
দক্ষিণ আফ্রিকান এই ব্যাটসম্যান ১৪ ম্যাচে ৪৫ গড় ও ১৫৫.১৭ স্ট্রাইক রেটে ৪৯৫ রান করেছেন, যেখানে হাফ সেঞ্চুরি ছিল ৪টি। তবে শীর্ষ রান সংগ্রাহক হওয়া থেকে অল্পের জন্য বঞ্চিত হন খুলনার অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। সমান ১৪ ম্যাচে তিনি ৪টি ফিফটিতে ৪৯১ রান করেছেন। তার গড় ছিল
৭০.১৪, আর স্ট্রাইক রেট
১৪৭।
তিন ও চারে রয়েছেন রাজশাহীর দুই ব্যাটসম্যান। লিটন দাশ ১৫ ম্যাচে ৪৫৫ রান করেছেন। আর চারে থাকা শোয়েব মালিকেরও সমান ম্যাচে সমান রান। ১১ ম্যাচে ৪৪৪ রান নিয়ে পাঁচে রয়েছেন কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের ডেভিড মালান।
৪ বোলার পেলেন ২০ উইকেট
শীর্ষে মোস্তাফিজ
এই আসরে ব্যাটসম্যানদের পাশাপাশি দাপট দেখিয়েছেন বোলাররাও। তাইতো শীর্ষ ৪ বোলারের সবাই সমান ২০টি করে উইকেট পেয়েছেন। তবে সবার ওপরে রয়েছেন রংপুর রেঞ্জার্সের বাংলাদেশি বোলার মোস্তাফিজুর রহমান।
টুর্নামেন্টের প্রথমদিকে ভালো না করলেও শেষ দিকে জ্বলে ওঠেন মোস্তাফিজ। তার দল গ্রুপ পর্বের তলানিতে থাকলেও তিনি ছিলেন নিজের ঢঙে। ১২ ম্যাচে কাটার মাস্টারের দখলে ২০টি উইকেট।
১৪ ম্যাচে ২০ উইকেট করে নিয়ে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে খুলনা টাইগার্সের পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ আমির ও চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বাংলাদেশি পেসার রুবেল হোসেন। খুলনার দক্ষিণ আফ্রিকান পেসার রবি ফ্রাইলিংক ১৪ ম্যাচে ২০ উইকেট নিয়েছেন। আর খুলনার আরেক পেসার শহীদুল ইসলাম ১৩ ম্যাচে ১৯ উইকেট নিয়ে শীর্ষ পাঁচে রয়েছেন।

টুর্নামেন্ট-ম্যাচ সেরা
আন্দ্রে রাসেল
এবারের বিপিএলে সেরা খেলোয়াড় ও ফাইনালে ম্যাচসেরা নির্বাচিত হয়েছেন রাজশাহী রয়্যালসের অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল। বিপিএলে কোনো বিদেশি অধিনায়ক হিসেবে প্রথম শিরোপা জেতেন এ ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার।
টুর্নামেন্টজুড়েই সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন আন্দ্রে রাসেল। ফাইনালে খুলনার বিপক্ষেও ছিলেন উজ্জ্বল। ম্যাচ জয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন এ অলরাউন্ডার। ব্যাট হাতে তিন ছক্কায় ১৬ বলে ২৭ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন তিনি। বল হাতেও ছিলেন সফল। ৪ ওভার বল করে ৩২ রানে নিয়েছেন ২ উইকেট। মুশফিকুর রহিমের মতো গুরুত্বপূর্ণ উইকেটটি তুলে নেন রাসেল। তাই ফাইনালে ম্যাচ সেরা হয়েছেন তিনি।
উল্লেখ্য, আন্দ্রে রাসেল শুধু ফাইনাল সেরা নয়, অলরাউন্ড পারফরম্যান্সের কারণে বিপিএলের সেরা খেলোয়াড়ও হয়েছেন আন্দ্রে রাসেল। ১৩ ম্যাচ খেলে ৫৬ দশমিক ২৫ গড়ে ১৮০ স্ট্রাইকরেটে করেছেন ২২৫ রান। যার মধ্যে একটি অর্ধ-শতক রয়েছে। বল হাতে সমান ম্যাচে ৮ দশমিক ৭৫ ইকোনমিতে নিয়েছেন ১৪টি উইকেট। তাই সিরিজ
সেরা পুরস্কারটিও উঠেছে তার হাতেই।