প্রতিবেদন

মুজিববর্ষে আসছে ২০০ টাকার নোট

মুজিববর্ষ উপলক্ষে বাজারে প্রথমবারের মতো আসছে ২০০ টাকার ব্যাংক নোট। আগামী ১৮ মার্চ বাংলাদেশ ব্যাংকের মতিঝিল অফিসসহ অন্যান্য শাখা অফিসে পাওয়া যাবে এ নোট। এ ছাড়া ১০০ টাকা মূল্যমানের স্মারক নোট ও ১০০ টাকা অভিহিত মূল্যের স্বর্ণ ও রৌপ্য স্মারক মুদ্রাও ছাড়া হবে। ৫ মার্চ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।
এতে আরও জানানো হয়েছে, নোটগুলোতে স্বাক্ষর করেছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির। প্রতিটি নোট ও মুদ্রায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি এবং ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জন্মশতবর্ষ ১৯২০-২০২০’ লেখা রয়েছে।
জানা যায়, ২০০ টাকা মূল্যমানের স্মারক ব্যাংক নোটটি শতভাগ কটন কাগজে মুদ্রিত এবং ইউভি কিউরিং বার্নিশযুক্ত। নোটের পেছনভাগে ডানদিকে গ্রামবাংলার বহমান নদী ও নদীর পাড়ের দৃশ্য (নদীর বুকে নৌকা, পাড়ে পাটক্ষেত ও নৌকায় পাট বোঝাইয়ের দৃশ্য) এবং বামপাশে বঙ্গবন্ধুর যুক্তফ্রন্টের মন্ত্রী থাকাকালীন সময়ের একটি ছবি মুদ্রিত রয়েছে।
১০০ টাকার স্মারক নোটের নিচের অংশে ‘মুজিববর্ষ’ লেখা রয়েছে। এ ছাড়া ১০০ টাকা অভিহিত মূল্যের ২৫ মিলিমিটার ব্যাসবিশিষ্ট ও ২২ ক্যারেট স্বর্ণ দ্বারা নির্মিত স্বর্ণ স্মারক মুদ্রাটির ওজন ১০ গ্রাম এবং ১০০ টাকা অভিহিত মূল্যের ৩৮ মিলিমিটার ব্যাসবিশিষ্ট ও ৯২৫ ফাইন সিলভার দ্বারা নির্মিত রৌপ্য স্মারক মুদ্রাটির ওজন ৩০ গ্রাম।
উভয় স্মারক মুদ্রাতেই বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি এবং অর্ধবৃত্তাকারভাবে ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জন্মশতবর্ষ ১৯২০-২০২০’ মুদ্রিত রয়েছে। স্বর্ণ স্মারক মুদ্রাটির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে স্মারক বাক্সসহ ৫৩ হাজার টাকা এবং রৌপ্য স্মারক মুদ্রাটির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে স্মারক বাক্সসহ ৩ হাজার ৫০০ টাকা।