বিনোদন

স্বামীকে ডিভোর্স দিলেন শাবনূর

স্বামী অনিক মাহমুদকে ডিভোর্স দিয়েছেন নায়িকা শাবনূর। সেই ডিভোর্স লেটারটি আবার ফাঁস হয়ে গেছে। এতে বেজায় ক্ষেপেছেন শাবনূর। বলেছেন, আমার আইনজীবী কোনোভাবেই এটা করতে পারেন না। অনুমতি ছাড়া তিনি কোনোভাবেই এই নোটিশ প্রকাশ করতে পারেন না।
স্বামীর সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদের আনুষ্ঠানিকতা একেবারে গোপনে করতে চেয়েছিলেন শাবনূর। বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে বসবাস করছেন এই অভিনেত্রী। গণমাধ্যমকে তিনি জানান, আমার বিবাহবিচ্ছেদ একান্তই আমার ব্যক্তিগত। এটা নিয়ে কেউ কথা না বললেই খুশি হব। তাই বিষয়টার আইনগত সমাধান চেয়ে আইনজীবীর দ্বারস্থ হই। অথচ আইনজীবী তা ফাঁস করে দিলেন!
জানা গেছে, শাবনূরের সঙ্গে সম্পর্ক থাকাকালীন তার স্বামী অনিক মাহমুদ দ্বিতীয় বিয়ে করেন। প্রায় ৪ বছর আগেই তিনি বিয়ে করেন। স্ত্রীর নাম আয়েশা।
গত কয়েক বছর ধরেই অবশ্য গুঞ্জন ছিল, স্বামী অনিকের সঙ্গে থাকছেন না শাবনূর। অনেকে বলেছেন, সংসার ভেঙে গেছে। তবে সেসব গুঞ্জন বরাবরই অস্বীকার করে এসেছেন এ নায়িকা। ডিভোর্স লেটার পাঠিয়ে সেসব গুঞ্জন নিজেই সত্যি প্রমাণ করলেন শাবনূর। বনিবনা না হওয়ায় স্বামী অনিক মাহমুদ হৃদয়কে তালাক দিয়েছেন তিনি। ২৬ জানুয়ারি শাবনূরের স্বাক্ষর করা একটি তালাক নোটিশ অ্যাডভোকেট কাওসার আহমেদের মাধ্যমে পাঠানো হয়েছে অনিক মাহমুদের ঠিকানায়।