ফিচার

উচ্চশিক্ষার সহজ গন্তব্য সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটি

মো. শহীদ উল্যাহ
সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটি (এসএইউ) হলো দক্ষিণ এশিয়া আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থার (সার্ক) ৮ সদস্য রাষ্ট্র দ্বারা প্রতিষ্ঠিত একটি আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়। এ ৮টি দেশ হলো আফগানিস্তান, বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত, মালদ্বীপ, নেপাল, পাকিস্তান ও শ্রীলংকা।
সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ২০১০ সালে ভারতের আকবর ভবনের একটি অস্থায়ী ক্যাম্পাসে ছাত্র ভর্তি শুরু করে। ২০১০ সালের আগস্টে অর্থনীতি ও কম্পিউটার বিজ্ঞান বিষয়ে স্নাতকোত্তর একাডেমিক প্রোগ্রাম চালুর মধ্য দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম শিক্ষাবর্ষ শুরু হয়। সার্কের ৮ দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের স্বাক্ষরিত একটি আন্তঃসরকার চুক্তির ভিত্তিতে সকল সদস্য দেশে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি স্বীকৃত।
দক্ষিণ এশীয় বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রধানত ৮টি সার্কভুক্ত দেশ থেকে শিক্ষার্থীদের আকর্ষণ করে, যদিও অন্যান্য মহাদেশের শিক্ষার্থীরাও এখানে ভর্তি হয়। শিক্ষার্থীদের ভর্তিতে সদস্য দেশের জন্য কোটা ব্যবস্থা রয়েছে। প্রতি বছর বিশ্ববিদ্যালয়টি ৮টি সদস্য দেশের একাধিক কেন্দ্রে ভর্তিপরীক্ষা পরিচালনা করে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, জি কে চড্ডা ১ মার্চ ২০১৪ সালে মারা যান। বিশ্ববিদ্যালয়ের মুখ্য উপদেষ্টা পদে, যখন বিশ্ববিদ্যালয়টি (এসএইউ) একটি প্রকল্প পর্যায়ে ছিল এবং পরবর্তীকালে এর সভাপতি পদে যোগদানের পূর্বে তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ছিলেন। তিনি দিল্লির জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবেও কিছুদিন কর্মরত ছিলেন।
শুরুতে মাত্র দুটি বিভাগ নিয়ে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করলেও বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে ৭টি বিভাগে মাস্টার্স ও পিএইচডি পর্যায়ে শিক্ষা কার্যক্রম চলছে। বিভাগগুলো হচ্ছেÑ ১. কম্পিউটার সায়েন্স, ২. বায়োটেকনোলজি, ৩. ফলিত গণিত, ৪. অর্থনীতি, ৫. আন্তর্জাতিক সম্পর্ক, ৬. আইন, ৭. সমাজবিজ্ঞান।
২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটিতে ভর্তি আবেদন শুরু হয়েছে। চলবে আগামী ১৫ এপ্রিল ২০২০ পর্যন্ত।

আবেদনের যোগ্যতা
সংশ্লিষ্ট বিষয়ে স্নাতক সম্পন্নকারী শিক্ষার্থীরা স্নাতকোত্তর পর্যায়ে পড়াশোনার জন্য আবেদন করতে পারবে। স্নাতক চূড়ান্ত পর্বের শিক্ষার্থী কিংবা ফলপ্রত্যাশীদের জন্যও রয়েছে ক্লাস শুরুর আগে চূড়ান্ত ফল প্রকাশের শর্তে আবেদনের সুযোগ। স্নাতকোত্তর পর্যায়ে আবেদন করার জন্য বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীদের স্নাতক পর্যায়ে শতকরা ৫৫ ভাগ মার্কস বা ৪ স্কেলে ২.৭৫ সিজিপিএ থাকতে হবে। অন্যান্য বিভাগের শিক্ষার্থীদের প্রয়োজন শতকরা ৫০ ভাগ মার্কস বা ৪ স্কেলে ২.৫০ সিজিপিএ।
পিএইচডি পর্যায়ে আবেদন করার জন্য আবেদনকারীকে স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করতে হবে। স্নাতকোত্তর চূড়ান্ত পর্বের শিক্ষার্থীদের জন্যও রয়েছে আবেদনের সুযোগ। পিএইচডিতে আবেদনের জন্য বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীদের স্নাতক ও স্নাতকোত্তর উভয় পর্যায়ে শতকরা ৫৫ ভাগ মার্কস বা ৪ স্কেলে ২.৭৫ সিজিপিএ থাকতে হবে। অন্যান্য বিভাগের শিক্ষার্থীদের জন্য প্রয়োজন শতকরা ৫০ ভাগ মার্কস বা ৪ স্কেলে ২.৫০ সিজিপিএ। বিস্তারিত জানা যাবে নিচের লিঙ্কে- যঃঃঢ়://ংধঁ.রহঃ/ধফসরংংরড়হং/ধফসরংংরড়হ-হড়ঃরপব.যঃসষ

আবেদনের প্রক্রিয়া
সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটির আবেদন প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ অনলাইনভিত্তিক। কিছু নির্দিষ্ট তথ্য দিয়ে নিচের লিঙ্ক থেকে অনলাইনে (যঃঃঢ়ং://ধফসরংংরড়হং.ংধঁ.রহঃ) আবেদন করা যাবে। অনলাইনে আবেদন ফি ১০ ডলার বা সমপরিমাণ টাকা পরিশোধ করে আবেদন নিশ্চিত করতে হবে।

ভর্তি পরীক্ষা
সার্কভুক্ত প্রতিটি দেশে একই সময়ে অভিন্ন প্রশ্নপত্রে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ভর্তি পরীক্ষার ফলাফলের ওপর ভিত্তি
করে মেধার ভিত্তিতে শিক্ষার্থী বাছাই করা হয়।
সংশ্লিষ্ট বিষয়ের স্নাতক পর্যায়ের সিলেবাস থেকে প্রশ্নপত্র প্রণয়ন করা হয়ে থাকে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে ভর্তি পরীক্ষার সিলেবাস ও নমুনা প্রশ্নপত্র পাওয়া যাবে। বাংলাদেশে ঢাকা ও চট্টগ্রামে দুটি কেন্দ্রে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।
আবেদনের সময় সুবিধামতো কেন্দ্র সিলেক্ট করা যাবে।

আসনসংখ্যা
প্রতি শিক্ষাবর্ষে স্নাতকোত্তর পর্যায়ে প্রতিটি বিভাগে ৩০ জন এবং পিএইচডি পর্যায়ে ৬ জন করে শিক্ষার্থী নেয়া হয়ে থাকে। স্নাতকোত্তর পর্যায়ে শতকরা ৫০ ভাগ সিট ভারতীয় শিক্ষার্থীদের জন্য সংরক্ষিত। আফগানিস্তান, ভুটান, মালদ্বীপ, নেপাল ও শ্রীলঙ্কার শিক্ষার্থীদের জন্য ৪ ভাগ, বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের শিক্ষার্থীদের জন্য ১০ ভাগ এবং অন্যদের জন্য বাকি সিট সংরক্ষিত। পিএইচডি পর্যায়ে শতকরা ৫০ ভাগ সিট ভারতীয় শিক্ষার্থীদের জন্য এবং বাকি ৫০ ভাগ অন্যদের জন্য বরাদ্দ।

স্কলারশিপ
স্নাতকোত্তর পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের জন্য ভর্তি পরীক্ষার ফলাফলের ওপর ভিত্তি করে সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটিতে ৪ ক্যাটাগরিতে স্কলারশিপ প্রদান করা হয় Ñ প্রেসিডেন্ট স্কলারশিপ, সার্ক সিলভার জুবিলি স্কলারশিপ, মেরিট স্কলারশিপ এবং ফ্রি-শিপ। প্রতিটি স্কলারশিপে পড়াশোনা, থাকা ফ্রি এবং সেই সঙ্গে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণে স্টাইপেন্ড প্রদান করা হয়।
পিএইচডি পর্যায়ের প্রতিটি শিক্ষার্থীর জন্য পড়াশোনা ও থাকা ফ্রি। সেই সঙ্গে মাস শেষে ২৫ হাজার রুপি প্রদান করা হয়। এর বাইরে নিজ খরচে সাউথ এশিয়ান ইউনিভার্সিটিতে পড়তে হলে প্রতি সেমিস্টারে গুণতে হবে ৪৪০ ডলার।