খেলা

আইজিপি বেনজীর আহমেদকে সভাপতি হিসেবে পেতে চায় দুই ক্রীড়া ফেডারেশন

স্বদেশ খবর ডেস্ক
আইজিপি বেনজীর আহমেদকে সভাপতি হিসেবে পেতে চায় দুটি ক্রীড়া ফেডারেশন। তিনি ৪ বছর ধরে দাবা ফেডারেশনের সভাপতি। একই সঙ্গে সাউথ এশিয়া চেজ কাউন্সিলের প্রেসিডেন্টও বেনজীর আহমেদ। পুলিশের মহাপরিদর্শক হিসেবে পদোন্নতি পাওয়ার পর এখন কাবাডি ফেডারেশনও তাকে অভিভাবক হিসেবে পেতে চাইছে। দীর্ঘদিন ধরেই এই ফেডারেশনটির সভাপতি হয়ে আসছেন পুলিশ প্রধান। যেমন আগের আইজিপি ড. জাবেদ পাটোয়ারী এপ্রিলে অবসরে যাওয়ার আগ পর্যন্ত ছিলেন সভাপতি। তাই প্রথা অনুসরণ করে বর্তমান আইজিপিকে সভাপতি করার অনুরোধ জানিয়েছে কাবাডি ফেডারেশন।
বেনজীর আহমেদ দায়িত্ব নেয়ার পর দাবা ফেডারেশনে গতিশীলতা এসেছে। তার আহ্বানে দেশের বেশ বেশ কিছু বড় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এগিয়ে এসেছে দাবার পৃষ্ঠপোষকতায়। ফেডারেশনের বর্তমান কমিটির মেয়াদ শেষ হচ্ছে ১৪ জুন। নির্বাচন আয়োজনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ফেডারেশনটিকে চিঠি দিয়েছিল জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ। ফেডারেশনও তাদের কাউন্সিলরদের কাছে নাম চেয়ে চিঠি দিয়েছিল। কিন্তু করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের ফলে কাউন্সিলররা তাদের নাম ফেডারেশনকে পাঠাতে পারেননি। তাই বর্তমান কমিটিতে চারটি পরিবর্তন এনে একটি কমিটির অনুমোদনের জন্য বেনজীর আহমেদ স্বাক্ষরিত একটি চিঠি পৌঁছেছে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব আক্তার হোসেনের কাছে। যেখানে সভাপতি হিসেবে নিজের নামই রেখেছেন আইজিপি।
বর্তমান ও প্রস্তাবিত কমিটির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শাহাব উদ্দিন শামীম বলেন, আইজিপি মহোদয়ের দাবা নিয়ে খুব আগ্রহ। তার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে দাবা একটি জায়গায় পৌঁছেছে। তাছাড়া তিনি দক্ষিণ এশিয়া চেজ কাউন্সিলেরও সভাপতি। তিনি থাকলে খেলাটা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে একটা ভালো জায়গায় পৌঁছে যাবে বলে আমাদের বিশ্বাস। তাই আমরা তাকেই সভাপতি হিসেবে পেতে চাই।
কাবাডি ফেডারেশনের জন্যও অভিভাবক পদে আইজিপিকে চাওয়াটা অযৌক্তিক নয়। নব্বইয়ের দশকের শেষভাগে ফেডারেশনটির সভাপতি ছিলেন সদ্য প্রয়াত সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান মোল্লা। রাজনৈতিক পটপরিবর্তনে ফেডারেশনের সভাপতির দায়িত্বে দেখা যায় আইজিপিকে। ফেডারেশনের বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদকসহ বেশ কিছু দায়িত্বশীল পদেও রয়েছেন বেশ ক’জন শীর্ষ
পর্যায়ের পুলিশ কর্মকর্তা। তাই তারা জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের কাছে শূন্য পদে বর্তমান আইজিপিকে সভাপতি চেয়ে চিঠি দিয়েছে।
ফেডারেশনের যুগ্ম সম্পাদক এমএ মান্নান বলেন, কাবাডি ফেডারেশনের সভাপতি আইজিপি, এটা একটা প্রথা হয়ে গেছে। আমরাও চাই বর্তমান আইজিপিকে সভাপতি হিসেবে পেতে। যদিও তিনি অন্য একটি ফেডারেশনের দায়িত্বে আছেন। এ অবস্থায় মাননীয় ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী যদি তাকে দুটি ফেডারেশনেরই দায়িত্ব দেন, তাতে আমাদের কোনো আপত্তি নেই।
এ বিষয়ে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেছেন, আইজিপি দাবা ফেডারেশনের সভাপতি হিসেবে অনেক দিন ধরেই আছেন। আবার আইজিপিকে সভাপতি করার একটা প্রথা আছে কাবাডির। তাই আমরা ওনার সঙ্গে কথা বলেই সিদ্ধান্ত নেব। উনি রাষ্ট্রের একটি গুরুত্বপূর্ণ পদে আছেন। সম্মানিত ব্যক্তি। ওনার ব্যক্তিগত পছন্দ-অপছন্দকেও গুরুত্ব দিতে হবে। আলোচনা করে যেটা ভালো হয়, সেটাই করব।