প্রতিবেদন

‘এক্সিলারেট বাংলাদেশ’ স্টার্টআপ মডেলকে সুসংহত করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, ‘এক্সিলারেট বাংলাদেশ’ স্টার্টআপ মডেলকে সুসংহত ও অর্থনীতিকে ত্বরান্বিত করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। বেটারস্টোরিজ লিমিটেড ও বাংলাদেশ এঞ্জেলসের আয়োজনে ব্রিজ ফর বিলিয়নস ও বিনিয়োগ বৃদ্ধির সহোযোগিতায় ‘এক্সিলারেট বাংলাদেশ’ নামক ১২ সপ্তাহের অধিক সময়ব্যাপী একটি ইনভেস্টমেন্ট রেডিনেস প্রোগ্রামের শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন।
প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হয়ে স্পিকার ‘এক্সিলারেট বাংলাদেশ’-এর শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন। ‘এক্সিলারেট বাংলাদেশ’-প্রোগ্রামটির মাধ্যমে স্টার্টআপদের ৮টি ইম্প্যাক্ট ও কমার্সিয়াল ইনিভেস্টমেন্ট রেডিনেস মডিউলের মাধ্যমে ইনভেস্টমেন্ট পেতে প্রস্তুত করার যে উদ্যোগ তা সত্যিই প্রশংসনীয় বলে উল্লেখ করেন স্পিকার।
তিনি বলেন, করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ মহামারির প্রভাবে বিশ্বব্যাপী কর্মসংস্থান হ্রাস ও দারিদ্র্য বৃদ্ধির কারণে অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। অর্থনীতিকে পুনরূজ্জীবিত করতে বিভিন্ন উদ্ভাবনী উপায় ও মডিউল নিয়ে ভাবতে হবে।
স্পিকার বলেন, ‘আমাদের দেশে অনেক মেধাবী ও দক্ষ নারীরা বিভিন্ন সেক্টরে কাজ করছেন। চাহিদা ও যোগানের মধ্যে সমন্বয় রেখে বিভিন্ন ব্যবসায়িক পরিকল্পনায় তাদের স¤পৃক্ত করতে হবে। এর মাধ্যমে মন্দা প্রভাব কাটিয়ে সচল ও শক্তিশালী অর্থনীতি পুনর্গঠন সম্ভব।’